ঘরেই তৈরী করুন ত্বকের উপযোগী উপটান

|রূপ-কেয়ার ডেস্ক|

ত্বককে লাবণ্য ও দীপ্তিময় করে তুলতে উপটানের জুড়ি নেই। কিন্তু কেনা উপটান অনেক সময় আপনার ত্বকের সাথে মানানসই হয়না। তবে ঘরেই বানাতে পারেন ত্বকের জন্য পার্ফেক্ট উপটান। তৈরি করতে লাগবে হলুদ, চন্দন, নিম, বেসন, তুলসী, মেথি ইত্যাদি। বাড়িতে কিভাবে ত্বক উপযোগী উপটান তৈরি করবেন জানে নিন রূপ-বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে।

সাধারণ উপটান

উপকরণ : ২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া, আধা টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়া, ২ টেবিল চামচ দুধ।

যেভাবে বানাবেন : সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। পেস্টটি ফেসওয়াশের মতো করে প্রতিদিন মুখ পরিষ্কার করতে ব্যবহার করুন। এক সপ্তাহ ব্যবহার করলে ত্বকের ভেতরকার ময়লা পরিষ্কার হয়ে ত্বক উজ্জ্বল হবে। এই পেস্টটি রেফ্রিজারেটরে ৩ থেকে ৪ দিন রেখেও ব্যবহার করতে পারবেন।

শুষ্ক ত্বকের জন্য

উপকরণ: ২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া, আধা টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ মধু, ১টি পাকা কলা, প্রয়োজনমতো তরল দুধ।

যেভাবে বানাবেন : সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিয়মিত ব্যবহার করুন। উজ্জ্বল করার পাশাপাশি ত্বকের আর্দ্রতা ও কোমলতা বজায় থাকবে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য

উপকরণ : ২ টেবিল চামচ বেসন, ১ টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া, আধা টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়া, ১টি কমলার রস বা লেবুর রস, আধা কাপ দই।

যেভাবে বানাবেন : সব কয়টি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই উপটান নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক সুন্দর, মসৃণ ও উজ্জ্বল হবে। ত্বকের তৈলাক্ত ভাবও থাকবে না।

শরীরে ব্যবহারের জন্য

উপকরণ: দেড় টেবিল চামচ বেসন, ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়া, ২ টেবিল চামচ লেবুর রস, আধা কাপ তরল দুধ।

যেভাবে বানাবেন : সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। গোসলের আগে পুরো শরীরের লাগিয়ে রাখুন পাঁচ মিনিট। উপটানটি সাবানের পরিবর্তে প্রতিদিন পুরো শরীরে ব্যবহার করতে পারেন। ত্বক পরিষ্কারের সঙ্গে সঙ্গে ত্বক উজ্জ্বল ও দীপ্তিময় হবে।

ফরসা, উজ্জ্বল ও দীপ্তিময় ত্বকের জন্য

উপকরণ: ৪ টেবিল চামচ বেসন, ২ টেবিল চামচ দুধের গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ তরল দুধ, ২ টেবিল চামচ লেবুর রস, দেড় টেবিল চামচ আম-গুঁড়া, আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়া, কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল, কয়েক ফোঁটা গোলাপজল।

যেভাবে বানাবেন : সব উপকরণ একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে ফেসপ্যাক হিসেবে মুখে ও গলায় লাগান। লাগানোর সময় আলতো করে ম্যাসাজ করে নিন। প্যাকটি পুরোপুরি শুকানোর আগে তুলে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ হবে।

কৃতজ্ঞতা: রূপ বিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা, হারমনি স্পা অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা বিউটি স্যালন
তথ্যসূত্র: কালেরকণ্ঠ

Check Also

৬০ বছরেও তাদের ত্বক ৩০ এর মতো দেখানোর রহস্য

ঝকঝকে কাচের মতো মসৃণ ত্বক। বয়স যতই ঊর্ধ্বমুখী হোক, মুখে বিন্দুমাত্র রেখাপাত নেই। মানে মুখ …