যন্ত্রণাদায়ক পিঠ ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে করুন ছোট্ট এই ৫টি কাজ

amitumi_how to relief back pain

একটানা বসে কাজ করেন যারা তারা খুব সহজেই পিঠব্যথায় আক্রান্ত হয়ে পড়েন। শুধু তাই নয় যদি হাড়ের দুর্বলতা জনিত কোনো সমস্যা থাকে তবে সেকারণেও অনেকেই পিঠে ব্যথার যন্ত্রণায় পড়ে থাকেন। বেশীরভাগ মানুষই এই পিঠ ব্যথাকে গুরুত্ব দেন না। ভাবেন এটি তেমন কিছুই না। অল্প সময়ের ব্যথা ভেবে ভুল কাজ করে থাকেন। কিন্তু আপনি জানেন কি? এই ব্যথা ধীরে ধীরে মারাত্মক আকার ধারন করতে পারে। এবং সঠিক পদক্ষেপ না নিলে মেরুরস শুকিয়ে যাওয়ার মত ভয়াবহ রোগে আক্রান্ত হতে পারেন আপনি। তাই পিঠ ব্যথাকে অবহেলা নয়। বরং এই পিঠ ব্যথার সমস্যা দূর করতে করুন ছোট্ট ৫ টি কাজ।

১)আড়মোড়া ভাঙ্গুন
একটানা কাজ করতে থাকলে কাজের ফাঁকে হাত পা ছড়িয়ে একটু আড়মোড়া ভেঙে নেবেন তা আপনি যেখানেই থাকুন না কেন। তবে খুব জোরে ও দ্রুত নয়। ধীরে ধীরে। এতে মেরুদণ্ডের আড়ষ্টতা দূর হবে এবং একটানা বসে থাকার ফলে মেরুদণ্ডে যে চাপ পরে তা দূর হবে, ফলে পথ ব্যথার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

২) অনেকক্ষণ একটানা শুয়ে-বসে থাকবেন না
অনেকটা সময় একটানা বসা বা শোয়া কোনটাই মেরুদণ্ডের জন্য ভালো কাজ নয়। কিন্তু অনেকেই অফিসে বসা কাজ বেশি করে থাকেন বলে একটানা বসে থাকতে হয়। তারা এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ২০-২৫ মিনিট পরপর উঠে একটু হাঁটাহাঁটি করে নেবেন। যদি তাও না পারেন তবে নিজের চেয়ার ছেড়ে উঠে দাড়িয়ে কাটিয়ে নিন ৫ মিনিট। এতেও উপকার পাবেন।

৩) নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম করুন
যারা বসা কাজ করেন তারা দিনে কায়িক পরিশ্রম করার সময়ই পান না। দেখা যায় পুরো দিন যায় ডেস্কে বসে মাথা খাটানোর কাজ করে এবং দিন শেষ বাসায় ফিরে বিছানায় শুয়ে। এগুলো মেরুদণ্ডের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। দিনে অন্তত ১০-১৫ মিনিট শারীরিক পরিশ্রমের কাজ করা উচিত। সব চাইতে ভালো হয় যদি ব্যায়াম করতে পারেন অথবা হাঁটাহাঁটি করে নিতে পারেন।এতে মেরুদণ্ড সহ দেহের সকল জয়েন্ট ব্যথা থেকে মুক্ত থাকবে।

৪) মেরুদণ্ড বা পিঠ সোজা করে বসুন
অনেকেই আছেন যারা বসার সময় পিঠ বাঁকা করে সামনের দিকে ঝুঁকে বসেন। বিশেষ করে উচ্চতায় লম্বা মানুষজন এই কাজটি করেন অনেক বেশি। এই কাজটি একেবারেই করবেন না। কারণ বাঁকা হয়ে বসলে মেরুদণ্ডের জয়েন্টে চাপ পড়ে অনেক বেশি। এবং এই কারণেই পিঠ ব্যথা হয় অনেকাংশে। এবং বয়স হলে এই সমস্যার কারণে কুঁজো হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই বসার সময় যতোটা সম্ভব পিঠ সোজা করে বসুন।

৫) ধূমপান করবেন না
গবেষণায় দেখা যায় ধূমপান মেরুদণ্ডের নিচের দিকের স্পাইনগুলোতে রক্ত সঞ্চালনে প্রদান করে থাকে। এতে করে মেরুদণ্ডের মেরুরজ্জু শুকিয়ে আসে। যার ফলে পিঠ ব্যথা জনিত সমস্যা এবং মেরুরজ্জু শুকিয়ে গেলে পঙ্গু হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই যত দ্রুত সম্ভব ধূমপানের বাজে অভ্যাস ত্যাগ করুন।

সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

ঘুমের সময় মেয়েদের অন্তর্বাস পরা কি জরুরি?

ঘুমের সময় পোশাকটি কেমন হবে তা নিয়ে চিন্তিত থাকেন বেশিরভাগ নারী। কারণ আঁটসাঁট পোশাক পরলে …