প্রতিদিন আমলকি কেন খাবেন?

আমলকি। ভেষজ গুণে অনন্য একটি ফল। এর ফল ও পাতা দুটিই ওষুধরূপে ব্যবহার করা হয়। বিভিন্ন অসুখ সারানো ছাড়াও আমলকি রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে দারুণ সাহায্য করে। আমলকির গুণাগুণের জন্য আয়ুর্বেদিক ওষুধেও এখন আমলকির নির্যাস ব্যবহার করা হয়।

শক্তি, দীর্ঘায়ু, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, হাঁড়ের শক্তি বৃদ্ধি এবং ওজন কমানোসহ নানা ক্ষেত্রে ব্যবহৃত আমলকি একটি প্রাকৃতিক উপকরণ। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ পুষ্টি, পলিফেনল, আয়রন, ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ ফল আমলকি একটি শীতকালীন ফল। দেশের প্রায় সব জায়গায় এটি পাওয়া যায়।

আমলকির জুস বা আমলাচূর্ণ ছাড়াও মানুষ ফলটি দিয়ে আচার, ক্যান্ডি, মোরব্বা, চাটনি এবং অন্যান্য মশলা তৈরি করে আসছে।

আমলকি ভিটামিন সি-এর একটি চমৎকার উৎস। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা পলিফেনল নামে পরিচিত। এটি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে এবং শরীরকে সুরক্ষা দেয়, শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। এটি শ্যাম্পু, চুলের তেল, টনিক এবং মুখের স্ক্র্যাবের মতো প্রসাধন পণ্য তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের পাশাপাশি আমলকি ত্বকের যত্নেও ব্যবহৃত একটি গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ।

সর্দি কাশি, মুখের আলসার, খুশকি, কোষ্ঠকাঠিন্য এবং অ্যাসিডিটি দূর করতেও আমলকির জুড়ি নেই। আপনার দৈনন্দিন খাদ্যের মধ্যে আমলা সহ আপনার স্বাস্থ্য এবং আপনার অনুভূতির মতো গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন আনতে পারে।

নিচে আমলকির তিনটি আকর্ষণীয় রেসিপি দেওয়া হলো :

আমলা চাটনি
আমলকি, মৌরি, ব্রাহ্মি পাতা এবং অন্যান্য মশলা দিয়ে তৈরি করতে পারেন চমৎকার স্বাদের চাটনি। এটি আরো সুস্বাদু করতে যোগ করতে পারেন গোলমরিচ।

মিষ্টি আলুর সঙ্গে ফ্রাই
মিষ্টি আলু ছোট ছোট করে কাটতে হবে। এবার ভালো করে ভেজে বাটা আমলকি দিয়ে পরিবেশন।

আমলকির মোরব্বা
আমলকি ছোট ছোট টুকরা করে চিনির সিরা এবং এলাচ সহযোগে ফুটাতে হবে। সিরাটি ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ফেলতে হবে।

Check Also

ঘামের গন্ধ থেকে পেটের রোগ,সমাধানে যা খাবেন

গ্রীষ্মে কাঁকরোল খান। এই সময়ে সুস্থ থাকার অন্যতম সেরা উপায় লুকিয়ে রয়েছে এই সবজিতেই। কাঁকরোল …