Advertisements

স্ত্রীকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান তারকা গড়ার কারিগর

chanchal-20191007150844 স্ত্রীকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান তারকা গড়ার কারিগর
তারকা গড়ার কারিগর তিনি। তার ক্যামেরার আলোতে রঙিন হয়েছেন সালমান শাহ, মৌসুমী, শাবনূর, পপি, নোবেল, তানভিন সুইটি, শমী কায়সার, বিপাশা হায়াত, আফসানা মিমিসহ দেশের অনেক জনপ্রিয় তারকা। খ্যাতিমান এই আলোকচিত্রী চঞ্চল মাহমুদকে সবাই চেনেন।

দেশের মডেল ফটোগ্রাফির এই অগ্রপথিকের স্ত্রী ক্যান্সারে আক্রান্ত। অর্থসংকটের কারণে ক্যান্সার আক্রান্ত স্ত্রীর চিকিৎসা করতে পারছেন না চঞ্চল মাহমুদ। তাই নিজের এমন বিপদের সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সবার কাছে সাহায্য চেয়েছেন তিনি।

চঞ্চল মাহমুদ তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লেখেন, ‘আজকে আমার মনটা ভীষণ খারাপ। অনেক কষ্ট নিয়ে আপনাদের লিখছি, আমার স্ত্রী রায়না মাহমুদ মিতুর ক্যান্সার ধরা পড়েছে। চিকিৎসা শুরু হয়েছে, আর এজন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। কিন্তু আমার এখন পর্যন্ত ৩ বার হার্টঅ্যাটাক হয়েছে, আমারও চিকিৎসা চলছে। এই ১২ বছরে আমাদের সবকিছুই শেষ। আমাদের ২ জনের চিকিৎসা চালানো আর সম্ভব হচ্ছে না। অনেক টাকা দরকার মিতুর ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য।’

Advertisements

আলোকচিত্রী চঞ্চল মাহমুদতিনি জানান, কয়েকদিনের মধ্যে তার স্ত্রী মিতুকে ভারতের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে। তাই তার আর্থিক সাহায্য প্রয়োজন।

চঞ্চল মাহমুদ বলেন ‘এতদিন মানুষকে সাহায্য করেছি। আজ আমি নিঃস্ব বন্ধুরা। আমরা দু’জনই এতিম, ভাই-বোন কেউই নেই। এছাড়া আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, এই মহা বিপদের হাত থেকে আমাদেরকে রক্ষা করুন।’

গুণী এই ফটো কারিগর আরও বলেন, ‘আমার বয়স এখন ৬৪ বছর আর মিতুর বয়স ৫০ বছর। ৪৮ বছর ফটোগ্রাফি করে কত স্টার, সুপারস্টার আর মেগাস্টার তৈরি করেছি। কিন্তু রয়ে গেছি অন্তরালে। চিকিৎসা খরচ বহন করতে করতে আজকে নিঃস্ব আমি। বন্ধুরা দয়া করে সাহায্য করুন। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ মালিক। আল্লাহ সবাইকে ভালো রাখুক।’

চঞ্চল মাহমুদকে সাহায্য পাঠাতে কল করতে হবে ০১৭১১৫২২১২৬-এ নাম্বারে। অথবা ব্যাংক হিসাব নাম: চঞ্চল মাহমুদ ফটোগ্রাফি, হিসাব নম্বর: ২০৫-১০০-৮৯৬২, ব্যাংকের নাম: ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ধানমণ্ডি শাখা।

Advertisements

Check Also

অভিনেতা দাদাকে স্মরণ করে কাঁদলেন নাতনি! (ভিডিও)

জনপ্রিয় অভিনেতা আবদুল কাদের ক্যানসারে কাছে হার মেনে গত ২৬ ডিসেম্বর না ফেরার দেশে চলে …