মধুচন্দ্রিমায় ফুরফুরে মিথিলা, পাঠালেন ভালোবাসার বার্তা

হানিমুনে গেলে যা হয় আর কী! সাধারণের মুঠোফোন ভরে ওঠে মিষ্টি সব মুহূর্তের ছবিতে। তারকারা তো আরো এক কাঠি সরেস, তাঁদের রোমাঞ্চকর ভালোবাসায় টইটুম্বুর ছবি মুঠোফোন ছাপিয়ে ভেসে বেড়ায় অন্তর্জালে। এবার সুদূর সুইজারল্যান্ড থেকে বাংলাদেশের অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা ভক্তদের জন্য ছবি শেয়ার করার পাশাপাশি পাঠিয়েছেন ভালোবাসাও।

ওপার বাংলার খ্যাতনামা পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে গাটছাড়া বাঁধার আগে অবশ্য প্রণয় নিয়ে যথেষ্ট লুকোচুরি করেছেন মিথিলা। ঘরোয়া আয়োজনে তাঁর মেহেদিরাঙা হাত যখন সৃজিতের হাতের ওপর পড়ল, তখন অবশ্য এপার-ওপার—দুই বাংলার বিনোদন অঙ্গনই মিথিলা-সৃজিতময়। সিনেপাড়া, নাট্যাঙ্গন থেকে শুরু করে পাড়ার চায়ের দোকানেও যখন ‘এই বিয়ে কীভাবে হলো, কেন হলো, কে কে ছিলেন অনুষ্ঠানে’ সেই আলোচনায় মশগুল, নবদম্পতি তখন অনিন্দ্য সুন্দরের দেশ সুইজারল্যান্ডে পাড়ি জমাতে বাক্সপেটরা গোছাচ্ছেন।

বিয়ের পরের দিনই সেখানে পা রাখেন মিথিলা-সৃজিত। দুই বাংলার অনেকেই যখন তাঁদের প্রেম, প্রণয়, পরিণয় নিয়ে বুনছেন কথার জাল, সুইজারল্যান্ডে এই যুগল বুনে চলেছেন স্বপ্নের বর্তমান। আর লুকোচুরির ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কি না কে জানে, ভালোবাসা প্রকাশে এতটুকু কার্পণ্য করছেন না তাঁরা। হয়তো যা কিছু এত দিন প্রকাশ করা যায়নি, তাকে গাণিতিক ছাঁচে ফেলে বাড়িয়ে নিয়েছেন নিবিড়ে বসে।

আর আনন্দের মুহূর্ত নাকি ভাগ করে নিতে হয়! সুইজারল্যান্ডে অবশ্য অন্য কাউকে সঙ্গে নেননি মিথিজিত। তাতে কী? সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুজনেই যে বেশ সক্রিয়! আর সেখানেই নিজেদের দারুণ সময়গুলো সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিচ্ছেন তাঁরা। আর এবার প্রিয়তম সৃজিতকে সঙ্গে নিয়ে সবার জন্য ভালোবাসা পাঠালেন মিথিলা। গ্রাম-গ্রামান্তরেও পৌঁছে যাওয়া ইন্টারনেটের কল্যাণে সেই ভালোবাসার বার্তা এসেছে অনেকের কাছেই। এমন বার্তা দেওয়া যে তাঁকেই মানায়, তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে হাস্যোজ্জ্বল মিথিলাকে দেখে আঁচ করা যায়।

৬ ডিসেম্বর সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন সৃজিত-মিথিলা। এ দিন কালো পাঞ্জাবির সঙ্গে লাল জহরকোট গায়ে চাপিয়েছিলেন সৃজিত। আর মিথিলার পরনে ছিল বাংলার ঐতিহ্যবাহী জামদানি, কপালে ছিল ছোট্ট টিপ। কানে-গলায় ছিল গহনা। এই বিশেষ দিনে মিথিলা পাশে পেয়েছেন মেয়ে আইরাকেও। সৃজিত ও মিথিলার মধ্যমণি হয়ে হাস্যোজ্জ্বল ভঙ্গিমায় ছবিও তুলেছে সে।

মিথিলার সঙ্গে সৃজিতের বন্ধুত্ব দিয়ে সম্পর্কযাত্রা শুরু। ধীরে ধীরে প্রেমের পথে পা বাড়ান তাঁরা। বেশ কয়েক মাস ধরেই তাঁদের বিয়ে নিয়ে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। খবর রটেছিল, আগামী বছরের মার্চে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তাঁরা। তবে সবাইকে চমকে দিয়ে দ্রুতই বিয়ের কাজটা সেরে ফেলেন এ যুগল।

Check Also

নিশোর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদের পর কষ্টে মেহজাবিন!

অভিনেতা আফরান নিশো ও অভিনেত্রী মেহজাবিনের বিয়ের পর বিচ্ছেদ হয়েছে তাদের মধ্যে। তবে বিচ্ছেদের পরও …