দই খান ওজন কমান

|নুসরাত নীলিমা|
rupcare_yogurt0

দইকে আমরা খুবই উপাদেয় এবং পুষ্টিকর খাবার হিসাবে চিনি।দুগ্ধ জাতীয় খাবারের মধ্যে একমাত্র দই আপনাকে দেবে ক্যালসিয়াম এবং প্রোটিনের অফুরন্ত যোগান। কিন্তু সুস্বাস্থ্য ধরে রাখতে এবং ওজন কমাতে দইয়ের অনন্য ভূমিকার কথা আমরা যদি জানতাম তাহলে প্রতিদিন অন্তত এক বাটি করে দই অনায়েসে সাবার করে ফেলতাম। মেদ কমাতে দইয়ের ভূমিকা বর্তমান যুগে বিজ্ঞানসম্মত ভাবে প্রমাণিত, বিশেষ করে পেটের মেদ কমাতে এটি সবচেয়ে বেশি কার্যকরী।

rupcar_yogurt4

সুন্দর পেটের জন্য দই:
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব তিনিসি এর গবেষক প্রফেসর মাইকেল এর মতে, আপনি প্রতিদিন আড়াইশ গ্রাম দই খেতে পারলে এক মাসের মধ্যে কোমড়ের মাপ এক ইঞ্চি কমিয়ে ফেলতে পারবেন। গবেষণায় আরো দেখা গেছে যারা ডায়েট কন্ট্রল করেন তাদের তুলনায় যারা নিয়মিত দই খান তাদের ২২% পুরো শরীরের ওজন এবং পেটের মেদ ৮১% বেশি কমে যায়! সত্যিই অবাক করা তাই না?

rupcar_yogurt5

যাদের ওজন বেশি তাদের শরীরের ফ্যাট কোষ থেকে কর্টিসল নামক একটি হরমোন তৈরী হয়। এটি কোমড় এবং পেটের চারপাশে আরো ফ্যাট জমতে উদ্বুদ্ধ করে। দইয়ে আছে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম, যা কর্টিসল তৈরী হতে বাধা দেয়। এর অ্যামিনো এসিড ফ্যাট বার্ণ করে আপনার শরীরের ওজন কমাতে যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করে।rupcar_yogurt2

এছাড়া আপনি দইয়ের মধ্যে পাচ্ছেন প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এবং মিনারেল যেমন ফসফরাস, পটাসিয়াম, রিবোফ্লাভিন, ভিটামিন বি৫, বি১২ সহ আরো অনেক অত্যাবশ্যকীয় উপাদান, যেগুলো অন্যান্য খাবার থেকে পেতে হলে আপনাকে প্রচুর পরিমান ক্যালরি গ্রহন করতে হতো। কিন্তু দইয়ে এসবই আপনি পাচ্ছেন অনেক কম ক্যালরি গ্রহন করে।

তাহলে আর দেরি কেন দইয়ের হাঁড়ি নিয়ে এক্ষুনি বসে পরুন।

Check Also

ওজন কমাতে কতটুকু লবণ খাবেন?

অতিরিক্ত ওজন থাকলে অবশ্যই তা কমিয়ে ফেলতে হবে। কারণ অতিরিক্ত ওজনের ফলে শরীরে বিভিন্ন ধরনের …