Advertisements

ভিন্ন স্বাদের আরবীয় ইফতার

amitumi_arabian-iftar ভিন্ন স্বাদের আরবীয় ইফতার

আমরা বাঙালি মুসলমানেরা ছোলা, পেঁয়াজু ইত্যাদি ভাজাপোড়া দিয়েই ইফতারি সেরে নেই। আজ না হয় আরবীয় ইফতারি হোক।

ইফতারে তাদের অন্যতম খাবার হচ্ছে হামাস আর কাবাব। রন্ধনশিল্পি শাহনাজ শিমুল দিয়েছেন আরবীয় একটি কাবার আর হামাসের রেসিপি।

১. হামাস

amitumi_arabian-iftar2 ভিন্ন স্বাদের আরবীয় ইফতার

উপকরণ

চিকপি বা, সাদা ছোলা ১ ক্যান বা ৪২০ গ্রাম। লেবুর রস এক কাপের চারভাগের ১ ভাগ। তাহিনি পেস্ট এক কাপের চারভাগের ১ ভাগ। রসুনের কোয়া ৩/৪টি। জলপাইয়ের তেল ২ টেবিল-চামচ। লবণ ১ চা-চামচ। জিরাগুঁড়া আধা চা-চামচ। পানি ২-৩ টেবিল-চামচ (না দিলেও সমস্যা নেই)। মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ।

পদ্ধতি

তাহিনি পেস্ট: তেল ছাড়া এক কাপের চারভাগের ১ কাপ সাদা তিল প্যানে একটু ভেজে নিন। তারপর এরসঙ্গে ৪ চা-চামচ তেল দিয়ে পেস্ট করে বানিয়ে নিন তাহিনি পেস্ট।

হামাস: তাহিনি সস আর লেবুর রস ভালো করে ব্লেন্ড করে আলাদা করে তুলে রাখুন। বাকি সব কিছু একসঙ্গে দিয়ে ব্লেন্ড করে তাহিনি-লেবুর রসের মিশ্রণটি দিন। একেবারে ক্রিমের মতো পেস্ট না হওয়া পর্যন্ত মেশাতে থাকুন। ক্রিইমি না মনে হলে অল্প অল্প করে পানি মেশান।

সালাদ, কাবাব, বা রুটির সঙ্গে খেতে পারেন।

Advertisements

* যারা ক্যানের ছোলা দিবেন না তারা কাঁচা চিকপি সারারাত পানিতে ভিজিয়ে পরেরদিন সিদ্ধ করে নিন

২. টার্কিশ আদানা কাবাব

amitumi_arabian-iftar1 ভিন্ন স্বাদের আরবীয় ইফতার

উপকরণ

খাসি বা, গরুর মাংসের কিমা ১ কেজি। পেঁয়াজ ১টি। কাঁচামরিচ ২-৩টি (দানা ছাড়ানো)। রসুনের কোয়া ৩টি। আদাবাটা ১ চা-চামচ। ধনেপাতার কুচি এক কাপের চারভাগের ১ কাপ। মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ। লবণ ২ চা-চামচ। সুমাক (টার্কিশ মসলা) ২ চা-চামচ। রুটি দুধে ভিজানো ১টি। ডিম ১টি।

* সুমাক যারা পাবেন না তারা সুমাকের বদলে ২ চা-চামচ লেবুর রস আর ১ চা-চামচ শুকনামরিচের গুঁড়া মিশিয়ে নিন।

পদ্ধতি

সব একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। ওভেনপ্রুফ পাত্রে অল্প তেল ব্রাশ করুন। হাতে পানি লাগিয়ে কিমার মিশ্রণ লম্বা পাতলা শেইপ করুন বা চপের আকার করুন একটু চিকন করে।

১৮০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট গ্রিল করুন। মাঝে একবার কাবাব উল্টে দিয়ে তেল ব্রাশ করে দিন।

যারা গ্রিলে করতে চান তারা অল্প তেল লাগিয়ে গ্রিল করে নিন।

একইভাবে যারা ওভেনে করতে চান না তারা অল্প তেল দিয়ে ননস্টিক প্যানে ভেজে নিন। তবে কাবাবের আসল মজা কিন্তু গ্রিল করলেই পাবেন।

নান রুটি, পিটা ব্রেড, সালাদ আর হামাস দিয়ে খেতে পারেন।

সূত্র: বাংলানিউজ২৪.কম

Advertisements

Check Also

মজাদার রসুন ভর্তা তৈরির রেসিপি

গরম ভাতে সুস্বাদু ভর্তার কোনো পদ হলে আর কথা নেই! গপাগপ কখন যে সাবাড় হয়ে …