সুন্দর চুলের জন্য যে ৭টি ক্ষতিকর কাজ বর্জন করবেন

amitumi_hair care tips

আমরা অনেকেই চুলের যত্ন নেওয়ার বদলে ক্রমাগত নানাভাবে এটি ব্যবহার করতে আগ্রহী হই। এসব কর্মকাণ্ড চুলের যথেষ্ট ক্ষতি করে। এ লেখায় থাকছে সাতটি ক্ষতিকর কাজ। সাস্থ্যবান চুলের জন্য এসব কাজ অবিলম্বে বর্জন করা উচিত।

১. যন্ত্রণাদায়ক ঝুঁটি
আপনার যদি চুলের টানটান ঝুঁটিবাঁধার অভ্যাস থাকে তাহলে তা কখনো কখনো যন্ত্রণাদায়ক হতে পারে। এ ধরনের যন্ত্রণাদায়ক ঝুঁটি ত্যাগ করাই ভালো। কারণ চুল ক্রমাগত টানটান করে বেঁধে রাখলে তা চুলের যেমন ক্ষতি করে তেমন আপনার স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর। এতে চুলের গোড়া দুর্বল হয়ে যায় এবং পরবর্তীতে ঝরে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

২. তাপ দেওয়া অভ্যাস
অনেকেরই গরম হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকানো অভ্যাস থাকে। এ ছাড়া হেয়ার স্ট্রেইটনার দিয়ে চুল আয়রন করাও অনেকের শখ। আপনার যদি এসব অভ্যাস থাকে তাহলে তা বর্জন করুন। বিকল্প হিসেবে হিট প্রটেক্টর স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। অন্যথায় তাপ আপনার চুলের ক্ষতি করবে। এ ছাড়া হেয়ার ড্রায়ারের মাধ্যমে চুল শুকানোর অভ্যাস ত্যাগ করতে না পারলে এর তাপ যথাসম্ভব কমিয়ে দিন।

৩. দৈনিক শ্যাম্পু করা
অনেকেরই দৈনিক চুলে শ্যাম্পু করার অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু চুলে দৈনিক শ্যাম্পু করা প্রয়োজনীয় নয়, বরং এতে চুলের ক্ষতি হয়। আপনার চুল যদি প্রতিদিন ধোয়ার প্রয়োজনও হয়, তার পরেও প্রতিদিন শ্যাম্পু করার প্রয়োজন নেই।

৪. স্প্রে
চুলের পরিচর্যা করতে গিয়ে অনেকেই স্প্রে ব্যবহার করেন। চুল নানাভাবে সাজাতে সাহায্য করে এসব স্প্রে। চুলে ভারি স্প্রে করারও অভ্যাস থাকে অনেকের। কিন্তু এসব স্প্রে চুলের ক্ষতি করে। বিশেষ করে চুল কার্ল করার জন্য অ্যালকোহল স্প্রে এবং তারপর গরম যন্ত্র ব্যবহার করা হলে তা চুলের মারাত্মক ক্ষতি করে।

৫. প্যাডল ব্রাশ
চওড়া প্যাডল ব্রাশ দিয়ে অনেকেই চুল আচড়ানোর অভ্যাস আছে। কিন্তু এ ব্রাশ ব্যবহারের আগে জানা উচিত যে, এটি চুলের জন্য ক্ষতিকর। বিশেষ করে ভেজা চুল এ ধরনের ব্রাশ ব্যবহারে যথেষ্ট ক্ষতির সম্মুখিন হয়। এ ধরনের ব্রাশ বাদ দিয়ে চওড়া ফাঁকযুক্ত সাধারণ চিরুনি ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো।

৬. অতিরিক্ত রং দেওয়া
চুলে রং দেওয়া অনেকের শখ। সীমিত মাত্রায় এটি করলে চুলের ক্ষতির সম্ভাবনা কম। তবে তা যদি বাড়াবাড়ি পর্যায়ে চলে যায় তাহলে তা সত্যিই সমস্যার কারণ হতে পারে। নিয়মিত চুল রং করলে সে জন্য মানসম্মত পণ্য ব্যবহার করতে হবে। অন্যথায় তা চুলের নানা মারাত্মক সমস্যা তৈরি করবে।

৭. অতিরিক্ত সাজানো
আপনার চুল নিয়ে যদি সারাক্ষণ একটার পর একটা কাণ্ড করতে থাকেন তাহলে তা চুলের ক্ষতি করতে পারে। অনেকেই চুল নানাভাবে সাজানো, রং করা, স্প্রে, কন্ডিশনার, তেল ইত্যাদি নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। আর এসব কর্মকাণ্ডের প্রভাবে চুলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। তার বদলে চুলকে কিছুটা স্বস্তি দিন। শুধু প্রয়োজনীয় পরিচর্যাই করুন। এতে চুলের স্বাস্থ্য অনেক ভালো থাকবে।

সূত্র: কালেরকণ্ঠ

Check Also

ফর্সা ত্বক চান? মেনে চলুন এই ৩ নিয়ম

আবহাওয়ার খামখেয়ালি প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকেও। এই রোদ, বৃষ্টি, ধুলোবালি- সবকিছুর সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে …