ভিন্ন স্বাদের পদ ‘শাহী মুরগী’

amitumi_shahi murgi

অতিথি আপ্যায়ন বলুন বা বাসায় একটু মজাদার খাবারের কথা বলুন মুরগীর মাংস ছাড়া মেন্যু পূরণ হয় না কখনোই। একটু ভিন্ন স্বাদ পেতে চাইলে মুরগীর মাংস দিয়েই রেঁধে ফেলা যায় নানা রকম খাবার। আজকে এরকমই একটু ভিন্ন স্বাদের খাবার নিয়ে হাজির হলাম। আজকে শিখে নিন মুরগীর একটু ভিন্ন পদ ‘শাহী মুরগী’র সহজ রেসিপিটি।

উপকরণঃ

মেরিনেটের জন্য
– আধা কেজি মুরগীর মাংস (হাড় ছাড়া হলে ভালো)
– ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
– আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
– ১/৪ চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো
– ২ চা চামচ আদা-রসুন বাটা
= আধা চা চামচ লবণ

বাদামের পেস্ট
– ১০/১২ টি কাঠবাদাম
– ১০/১২ টি কাজু বাদাম
– আধা চা চামচ পোস্তদানা
– ২ টেবিল চামচ কোরানো নারকেল

শাহী মুরগীর জন্য
– ৩ টেবিল চামচ তেল
– ২ টি তেজপাতা
– আধা চা চামচ জিরা
– ৪ টি বড় পেঁয়াজ কুচি
– ১ টি বড় টমেটো
– ২ চা চামচ আদা রসুন বাটা
– ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
– ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
– ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো
– আধা চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো
– ১ কাপ টক দই
– লবণ স্বাদমতো
– ১ কাপ গরম পানি

পদ্ধতিঃ

– মুরগীর মাংস ভালো করে ধুয়ে মেরিনেটের জন্য রাখা সব কিছু দিয়ে মেখে মেরিনেট করে ৩০ মিনিট আলাদা করে রেখে দিন।
– বাদামের পেস্টের জন্য রাখা নারকেল বাদে সকল কিছু আধা কাপ গরম পানিতে ভিজিয়ে রেখুন ১০ মিনিট। এরপর ছেঁকে তুলে নিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। কোরানো নারকেল ও ২-৩ টেবিল চামচ পানি দিয়ে আবার ব্লেন্ড করুন।
– একটি প্যানে তেল গরম করে এতে তেজপাতা, জিরা দিয়ে ফুটতে দিন। এরপর এতে পেঁয়াজ কুচি, আদা-রসুন বাটা দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন।
– পেঁয়াজ নরম হয়ে এলে এতে মরিচ গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো ও হলুদ গুঁড়ো দিয়ে মিশিয়ে মেরিনেট করে রাখা মাংস দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে নিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ১০-১২ মিনিট অল্প আঁচে রাঁধতে থাকুন।
– তেল উপরে উঠে এলে টমেটো কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে টমেটো একেবারে মিশিয়ে ফেলুন। এরপর বাদামের পেস্টটি দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন।
– অল্প আঁচে ৫ মিনিট রেঁধে নিয়ে এতে টক দই ফেটিয়ে দিয়ে দিন ও লবণ দিন। নেড়ে মিশিয়ে নিয়ে এতে গরম পানি দিয়ে দিন। ফুটে উঠলে এতে গরম মসলা ছিটিয়ে দিয়ে মিশিয়ে ঢাকনা ঢেকে ২ মিনিট রাঁধুন।
– ব্যস, এবার চুলা থেকে নামিয়ে ওপরে পছন্দমতো ডেকোরেট করে মজা নিন মজাদার খাবার‘শাহী মুরগী’র।

সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

মজাদার রসুন ভর্তা তৈরির রেসিপি

গরম ভাতে সুস্বাদু ভর্তার কোনো পদ হলে আর কথা নেই! গপাগপ কখন যে সাবাড় হয়ে …