তিনি আপনাকে শুধুই ‘সময় কাটানোর জন্য’ ভালোবাসেন? বুঝে নিন ১১ টি লক্ষণে

amitumi_false love

বর্তমান যুগের ভালোবাসার সম্পর্ক এতো বেশি ঠুনকো হয়ে গিয়েছে যে কারো উপর বিশ্বাস রেখে চলাটাকে শুধুই বোকামি বলে ধরে নেয়া হয়। মানুষের মানসিকতা এতো বেশি নিচু হয়েছে ইদানীং যে ভালোবাসার মতো পবিত্র সম্পর্কটিকেও খারাপ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করেন অনেকেই। বিশেষ করে যারা একেবারে চোখ কান বন্ধ করে বিশ্বাস করেন ভালোবাসার মানুষটিকে তাদেরকেই খেতে হয় ধোঁকা। আজকাল একসাথে সারাটি জীবন পাশে থাকার জন্য ভালোবাসার মতো মানুষের বেশ অভাব দেখা যায়। কিন্তু শুধুমাত্র শারীরিক সম্পর্ক এবং কিছুদিন সময় কাটানোর জন্য ভালোবাসার অভিনয় করা মানুষের অভাব নেই। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন আপনার ভালোবাসা মানুষটি শুধুই সময় কাটানোর জন্য সম্পর্ক করেছেন? চলুন জেনে নেয়া যাক কিছু লক্ষণ।

১) আপনিই প্রতিবার প্রথমে তার খোঁজ খবর নেন। দিনের বেশীরভাগ সময় আপনি ফোন দিয়ে কোথায় আছেন, কী করছেন তা জানতে চান। তিনি আপনার খোঁজ নেন না বা নিলেও তা বেশ কম।

২) আপনি তার বন্ধুবান্ধব একেবারেই চেনেন না। আপনি তার বন্ধুবান্ধবের সাথে তেমন মেশেননি কারণ তিনি আপনাকে তার বন্ধুবান্ধবের সাথে পরিচয় করাতে চান না।

৩) তিনি নানা বাহানা দিয়ে রাতে আপনার সাথে কথা বলতে চান না একেবারেই। সকালে তাড়াতাড়ি উঠতে হবে বা বাবা-মা রাতে কথা বলা পছন্দ করেন না। কিন্তু তাকে ঠিকই ফেসবুকে দেখা যায় অথবা আপনি হুট করে ফোন দিলে কল ওয়েটিং পান।

৪) তিনি আপনার টেক্সট মেসেজের রিপ্লাই খুব বেশি দেন না। দিলেও অনেক দেরি করে দিয়ে থাকেন। কিন্তু যখন আপনারা একসাথে থাকেন তখন বেশীরভাগ সময় তিনি ফোনের সাথেই লেগে থাকেন।

৫) তিনি আপনার সাথে তখনই দেখা করতে আসেন যখন তার সময় হয় বা এককাজে দুই কাজ করার মতো করে আপনার সাথে দেখা করেন। আপনি দেখা করতে চাইলেও তিনি সময় দেন না।

৬) তিনি সবসময় আপনাদের সম্পর্ক লুকিয়ে রাখতে চান। এমনকি নানা বাহানা দিয়ে আপনাকেও সম্পর্কটি সম্বন্ধে কাউকে জানাতে নিষেধ করেন।

৭) তিনি সব সময় আপনার সাথে একাকী সময় কাটানোর সুযোগ খোঁজেন। মাঝে মাঝে যৌন মিলনের জন্য আপনার সম্মতি চান এবং এমন পরিস্থিতি তৈরি করেন যাতে আপনার সাথে যৌন মিলন সম্ভব হয়।

৮) আপনাদের মধ্যে যোগাযোগটা বেশ কম হয়। হয়তো আপনি দেখলেন আপনার বন্ধুদের সম্পর্ক থাকলে দিনে ৪/৫ বারও কথা হয় যা আপনাদের মধ্যে হয় না। এর কারণ হিসেবে তিনি শুধুই কাজের ব্যস্ততা দেখান।

৯) তিনি সবসময় নিজের কথাই বলেন। এবং নিজেকে নিয়েই মগ্ন থাকেন। আপনি কি চান বা আপনার কি ইচ্ছে তা তার কাছে মুখ্য বিষয় নয় একেবারেই।

১০) তিনি যদি আপনার প্রশংসা করেন তবে তা হয় শুধুই আপনার শরীর বৃত্তীয় এবং বাহ্যিক সৌন্দর্য সম্পর্কে।

১১) আপনাদের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে তার কোনো ধরণের কোনো মাথাব্যথা নেই। এমনকি আপনার পরিবার যদি বিয়ের জন্য চাপ দিয়ে থাকেন তাহলেও তার মধ্যে কোনো ধরণের কিছুই কাজ করে না।

এইসকল লক্ষণ যদি আপনার পছন্দের মানুষটির মধ্যে দেখতে পান তবে খুব সতর্ক হয়ে যান। তার প্রতিটি পদক্ষেপের খোঁজ নিন। এরপর নিজেকে বুঝিয়ে দিন যে তিনি আপনার জন্য সঠিক মানুষ নন। তিনি ভালো হয়ে যাবেন সে আশা করতে যাবেন না, নিজের ভালো চাইলে সরে আসুন তার কাছ থেকে।

সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

পরকীয়ার শিকার হচ্ছেন না তো আপনি?

আপনি ভাবছেন আপনার জীবনসঙ্গী খুবই ভালো মানুষ, তিনি আপনার সঙ্গে খুবই ভালো আচরণ করেন, তার …