দারুণ সহজ উপায় -নারীদের অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত করার

rupcare_eregular menes
অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যা যে কোন বয়সের নারীদের মাঝেই দেখা যেতে পারে। বিশেষ করে যারা অবিবাহিত, তাঁদের মাঝে বেশি দেখা যায় এই সমস্যা। অনিয়মিত পিরিয়ডের কারণে সন্তান ধারণে সমস্যা সহ হতে পারে আরও নানান রকমের শারীরিক সমস্যা। কিন্তু কী করবেন? জেনে নিন অনিয়মিত পিরিয়ডকে নিয়মিত করা ২টি দারুণ ঘরোয়া চিকিৎসা। দুটোর মাঝে যে কোন একটি পালন করুন মাত্র ১ মাস। পিরিয়ডের সমস্যা চিরকালের জন্য দূরীভূত হবে। আর এই চিকিৎসায় ব্যবহার করা হবে আদা, দারুচিনি, দুধের মত সাধারণ ও সহজলভ্য সব উপাদান।
আদার ব্যবহার
বহু গুণের এই আদা কেবল সর্দি কাশি সারাতেই কাজে লাগে না, পিরিয়ডকে নিয়মিত করতেও এর জুড়ি নেই। কীভাবে ব্যবহার করবেন এই আদা?
– ১ কাপ পানি নিন। এতে ১ চা চামচ মহি আদা কুচি ৫ থেকে ৭ মিনিট ফুটিয়ে নিন।
– সামান্য চিনি বা মধু যোগ করুন।
– এই পানীয়টি পান করুন দিনে ৩ বার, খাবার খাওয়ার পর।
– ১ মাস নিয়মিত পান করুন, পিরিয়ড নিয়মিত হয়ে যাবে নিশ্চিত।
দারুচিনিতে হবে জাদু
পিরিয়ডকে নিয়মিত করতে দারুচিনি আরেকটি দারুণ কার্যকরী উপাদান। এই দারুচিনি ব্যবহার করে পিরিয়ড জনিত ব্যথা হতেও মুক্তি পেতে পারবেন আপনি। কীভাবে ব্যবহার করবেন?
-আধা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো যোগ করুন এক গ্লাস দুধে। সাথে দিতে পারেন মধু। এই মিশ্রণ পান করুন ৪ থেকে ৫ সপ্তাহ। পিরিয়ড নিয়ে সমস্যা কেটে যাবে।
-পান করতে পারেন দারুচিনি চা, দৈনিক এক টুকরো দারুচিনি চিবালেও কাজে দেবে। তবে খেয়াল রাখবেন, দারুচিনি যেন হয় খাঁটি।
সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

ব্ল্যাক টি না গ্রিন টি, কোনটি বেশি উপকারী?

গ্রিন টি এবং ব্ল্যাক টি উভয়ই স্বাস্থ্যকর পানীয়। তবে আপনি কি কখনও ভেবে দেখেছেন, কোনটি …