নারীরা পিরিয়ডের ব্যথায় আরাম পেতে যা করবেন

rupcare_pain
পিরিয়ড বা মাসিক – নারীদের শরীরে প্রকৃতির একটি চিরন্তন নিয়ম। নারী যে সন্তান ধারণে সক্ষম, সেটার প্রমাণই হচ্ছে তার নিয়মিত মাসিক। তবে এই সাধারণ নিয়মেও রয়েছে কিছু সমস্যাদায়ক ব্যাপার, আর তা হলো মাসিকের সময় শারীরিক ব্যথা। সেটা যেমন তলপেটে হতে পারে, তেমনি হতে পায়ে ঊরু, পশ্চাত্‍দেশ বা কোমরেও। কারো কারো মাথাতেও প্রচণ্ড ব্যথা করে। মোটকথা মাসিকের সময় ব্যথাটা যেন মাসিকের অবিচ্ছেদ্য অংশ। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যথার এই যন্ত্রণায় স্বাভাবিক জীবনযাপন করাটাই মুশকিল হয়ে পড়ে। আর মাসিকের ব্যথা কমাতে পেইন কিলার মতো ওষুধ ঘনঘন খাওয়াও বিপজ্জনক। তাই জেনে নিন মাসিকের কারণে শারীরিক ব্যথা দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায়।
বিশেষ ভঙ্গিমায় শোয়া
আপনার শারীরিক ভঙ্গিমার ওপরেও অনেকখানি নির্ভর করে ব্যথার পরিমাণ। তলপেটে ব্যথা খুব বেশি হলে বাম কাত হয়ে হাঁটু ভাঁজ করে শুয়ে থাকুন। ব্যথা কম অনুভূত হবে। বিশ্রাম নেবার সময় চিত হয়ে শোন এবং পায়ের নিচে কমপক্ষে দুটো বালিশ দিয়ে উঁচু করে দিন। এতেও ব্যথা কম অনুভূত হবে।
মেথি
মেথি খুবই উপকারী একটি ভেষজ ওষুধ। সাধারণভাবে মেথি রান্নাঘরের মসলা হিসেবে পরিচিত। এই মসলার রয়েছে বহুবিধ গুণ। মাসিকের সময় পেটে ব্যথা, শরীর ব্যথা, এমনকি মাথা ব্যথা সারাতেও মেথির জুড়ি নেই। এক চা চামচ পরিমাণ মেথি ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার মেথিটুকু চিবিয়ে খেয়ে ফেলুন। দেখবেন, কিছুক্ষণের মধ্যেই অসহনীয় ব্যথা অনেকখানি কমে যাবে।
গরম পানির সেঁক
গরম পানির সেঁকও মাসিকের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। এতে দ্রুত আরাম পাওয়া যায়। হট ওয়াটার ব্যাগে সহনীয় পর্যায়ে গরম পানি নিন। এবার সেঁক দিতে থাকুন তলপেট, পেট, কোমর ও ঊরুতে। ব্যথা দ্রুত কমে যাবে। হট ওয়াটার ব্যাগ না থাকলে প্লাস্টিকের বোতলে গরম পানি ভরে সেঁক দিতে পারেন। অথবা ইস্ত্রী দিয়ে কাপড় গরম করেও সেঁক দিতে পারেন।
ভিটামিনযুক্ত খাবার
মাসিকের ব্যথা কমাতে ভিটামিন ই এবং বি বেশ উপকারী। যাদের মাসিকের সময় খুব বেশি ব্যথা হয় তারা ভিটামিন ই, বি১, বি৬, ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডযুক্ত খাবার বেশি করে খান। যেমন চিনা বাদাম, পেস্তা বাদাম, বাঁধাকপি, আম, মাছ, ওটমিল, কলা, ডিম, সবুজ শাকসবজি, গম, ডাল, বিভিন্ন ধরনের শস্যদানা ইত্যাদি। এসব ভিটামিন পেশির সংকোচনজনিত মাসিকের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করবে।
পুদিনা পাতা
পুদিনা পাতা আরেকটি ভেষজ ঔষধি, যা বিভিন্ন রোগের মহৌষধ। পুদিনা পাতাও মাসিকের কারণে হওয়া বিভিন্ন জায়গার ব্যথা কমাতে সহায়তা করে। টাটকা পুদিনা পাতা আঙুল দিয়ে কচলে নাকের কাছে ধরুন, মাসিকের কারণে মাথা ধরা, মাথা ভার হয়ে থাকা মুহূর্তেই দূর হয়ে যাবে। পুদিনা পাতা ভালো করে ছেঁচে নিয়ে এক চা চামচ পুদিনা পাতার রস ও এক চা চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে তলপেট, ঊরু, কোমর ও অন্যান্য ব্যথার জায়গায় আলতো মালিশ করুন। ব্যথা কমে যাবে কিছুক্ষণের মধ্যেই।
কিছু জিনিস বাদ দিন
যদি অ্যালকোহল গ্রহণের অভ্যাস থাকে তাহলে বাদ দিন। সেই সঙ্গে পরিহার করুন অতিরিক্ত চিনি, লবণ ও ক্যাফেইনযুক্ত খাবার। এতে রক্ত জমাট বেঁধে যে ব্যথা হয়, তা রোধ হবে।
সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

আপেল সাইডার ভিনেগার কি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়?

আপেল সাইডার ভিনেগার আপেলের রস ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। এটি অত্যন্ত অম্লীয় এবং তীব্র …