বিপরীত লিঙ্গের চোখে ৭টি গোপন কৌশলে “আবেদনময়” হয়ে উঠুন!

amitumi_looks

বিপরীত লিঙ্গকে আকর্ষণ করতে সকলেই চান। আপনি পুরুষ হলে চাইবেন নারীরা আপনাকে আকর্ষণীয় ভাবুক, আপনি নারী হলে চাইবেন পুরুষের চোখে আবেদনময় হয়ে উঠতে। আপনি কি দেখতে খুব একটা সুন্দর নন? কোন প্রয়োজন নেই! বিপরীত লিঙ্গকে আকর্ষণ করতে ভীষণ সুন্দর হবার কোনই প্রয়োজন নেই আসলে। বরং সঠিক আচরণ ও কিছু গোপন কৌশলই আপনাকে করে তুলবে অন্যদের চোখে আবেদনময়। তাই, নিজের চেহারা নিয়ে দ্বিধা ঝেড়ে ফেলে চেষ্টা করে দেখুন এই ৭টি টিপস, সকলের চোখে মধ্যমণি হয়ে উঠবেন নিঃসন্দেহে!

১) প্রথমেই মনযোগ দিন নিজের পোশাকের দিকে। আপনি দেখতে আহামরি সুন্দর নন বলে ভালো পোশাক পরবেন না, এটা কি কোন যুক্তি হতে পারে? নিজের শরীর, গায়ের রঙ ইত্যাদির সাথে মিলিয়ে সঠিক পোশাক বেছে নিন। এমন পোশাক বাছুন, যাতে আপনার দৈহিক ও মানসিক সৌন্দর্য অনেকটাই পরিস্ফুটিত হয়ে ওঠে। একটা আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব যেন প্রকাশ পায় পোশাকে।

২) ছোট খাট সমস্ত খুঁটিনাটির দিকে মনযোগ দিন। যেমন মানানসই হেয়ারকাট, জুতা, ঘড়ি, গহনা এবং অন্যান্য এক্সেসরিজ। কেন এগুলো গুরুত্বপূর্ণ? কেননা আপনার চেহারা যেমনই হোক না কেন, এসব জিনিসের মাধ্যমে প্রকাশ পায় আপনার রুচি ও ব্যক্তিত্ব। এবং সঠিক হেয়ার কাট ও দাড়ি রাখার স্টাইল দিলে ঢেকে ফেলে সম্ভব চেহারার অনেক ত্রুটিও। হেয়ার কাট বা দাড়ির স্টাইল বদলে মুহূর্তের মাঝেই আবেদনময় হয়ে ওঠা সম্ভব।

৩) শরীর থেকে যেন কোন বাজে দুর্গন্ধ না আসে। রুচিশীল পারফিউম ব্যবহার করুন, কথা বলার সময় যেন মুখে গন্ধ না থাকে, মোজা থেকে যেন গন্ধ না আসে ইত্যাদি খেয়াল রাখুন। এবং শরীরে কোন চর্মরোগ থাকলে সেটার চিকিৎসা করান। হাত ও পা সর্বদা সুন্দর রাখুন। নিজেকে পরিচ্ছন রাখুন। যেমন ধরুন, আপনার মাথার খুশকি পড়ে আছে কাপড়ে বা গলায় ময়লা জমে হয়েছে কালো দাগ- এগুলো কি খুব আকর্ষণীয়? একদম নয়!

৪) ঝলমলে ও প্রাণবন্ত মানুষ হয়ে উঠুন। কিন্তু কখনোই বেশি কথা বলবেন না। অন্যকে গুরুত্ব দিন, তাঁদের কথা মন দিয়ে শুনুন। আর আপনি যা বলবেন, সেটাই যেন খুবই চমৎকার হয়। আজেবাজে কথা, ফালতু রসিকতা ইত্যাদি করে নিজেকে ছোট করবেন না। বরং নিজের বয়স ও ব্যক্তিত্বের ওজন বুঝে কথা বলুন। তার সাথে আপনার সম্পর্কটারও ওজন করতে শিখুন। দেখবেন রাতারাতি আপনার সম্মান বেড়ে যাচ্ছে।

৫) আপনি যে কারো চোখে আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে চান, এই বিষয়টি মোটেও প্রকাশিত হতে দেবেন না। বিপরীত লিঙ্গকে খুব বেশি পাত্তা দেয়া, খুব বেশি আগ্রহ প্রকাশ তাঁদের প্রতি এগুলো যেন না হয়। বরং তাঁদের আগ্রহ বাড়তে দিন। বাড়তে বাড়তে একসময় তাড়া নিজেরাই এগিয়ে আসবেন আপনার দিকে।

৬) বিপরীত লিঙ্গের কেউ যদি আপনার প্রতি একটু আগ্রহ প্রকাশ করে, তাতেই ভীষণ উচ্ছসিত হয়ে উঠবেন না। এমন একটা আচরণ করবেন যে এটা খুবই সাধারণ একটি ব্যাপার। উচ্ছসিত হয়ে নিজের সব কথা প্রকাশ করে দেবেন না বা তাঁদেরকে বেশি মূল্য দিয়ে ফেলবেন না।

৭) নিজের আচার আচরণে পরিবর্তন আনুন। আপনি দেখতে যেমনই হোন না কেন, আপনার পোশাক যেমনই হোক না কেন, আসল হাতিয়ার হচ্ছে আপনার ব্যক্তিত্ব। মার্জিত হাসি, চোখের ভাষায় কথা বলা, সামান্যতে অনেক কিছু বুঝিয়ে দেয়া, একটু রহস্য ইত্যাদি চর্চা করে প্রকাশ করুন যেন হয়ে উঠতে পারেন সবার চাইতে আলাদা। মনে রাখবেন, সবার চাইতে ভিন্ন কিছুই হচ্ছে আবেদনময় ও আকর্ষণীয়!

সূত্র: প্রিয় লাইফ

Check Also

পরকীয়ার শিকার হচ্ছেন না তো আপনি?

আপনি ভাবছেন আপনার জীবনসঙ্গী খুবই ভালো মানুষ, তিনি আপনার সঙ্গে খুবই ভালো আচরণ করেন, তার …