ঈদের দিনে ভিন্ন স্বাদের ৬ পদ

পোলাও, মাংস থেকে ভিন্ন কিছু করতে চাইছেন? আবার উৎসবের আমেজও থাকা চাই। দেখে নিন আতিয়া আমজাদের দেওয়া রেসিপিগুলো।

চিকেন কেইভ

amitumi_chicken keiv

উপকরণ: ব্রয়লার মুরগির বুকের মাংস ৪ টুকরা (হাড় ও চামড়া ছাড়া), রসুন ৪ কোয়া, পুদিনাপাতা ১ কাপ, ধনেপাতা আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি, লবণ আধা চা-চামচ, লেবুর রস ২ চা-চামচ, নরম মাখন ১০০ গ্রাম, তেল ২ টেবিল চামচ, ডিম ১টি, ময়দা ৪-৫ চা-চামচ, ব্রেড ক্রাম্ব ১ কাপ।

প্রণালি: শিলপাটায় বেটে বা হামানদিস্তা দিয়ে রসুন, পুদিনাপাতা, ধনেপাতা ও কাঁচা মরিচের পেস্ট করে নিতে হবে, যেন মাখা মাখা থাকে। চাইলে ব্লেন্ডারও ব্যবহার করতে পারেন একটু সাবধানে।
মাখন, লেবুর রস ও লবণ চামচ দিয়ে সবুজ পেস্টের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। ফ্রিজে রেখে দিন ৩০ মিনিট। মাংসের টুকরাগুলো আড়াআড়ি মাঝ বরাবর কেটে খুলে নিন। একটা পলিথিন ব্যাগের ভেতর একইভাবে রেখে ভারী কিছু দিয়ে থেঁতো করুন আস্তে আস্তে। দেখবেন যে মাংসের টুকরাগুলো পাতলা হয়ে ছড়িয়ে অনেক বড় হয়ে গেছে। খেয়াল রাখবেন যেন বেশি থেঁতো হয়ে ছিঁড়ে না যায়।
ফ্রিজের সবুজ মিশ্রণ বের করে সমান চার ভাগ করে মাংসে ভরে রোল করে নিন। চারটি টুকরাই এভাবে রোল করুন। এবার ফয়েল পেপারে শক্ত করে মুড়ে ২ ঘণ্টা বা সম্ভব হলে ৭-৮ ঘণ্টা পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে দিন। ফ্রিজ থেকে বের করে দেখবেন রোলটা জোড়া লেগে গেছে। ফয়েল পেপার খুলে রোলগুলো আগে ময়দা, এরপর ডিম ও শেষে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে প্যানে অল্প অল্প তেলে সেঁকে তুলুন ১ মিনিট। এরপর ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ৩০ মিনিট বেক করে নিন। বের করে টুকরা টুকরা করে কেটে পরিবেশন করুন।
চুলায়ও অল্প আঁচে এই রান্নাটা করা যাবে। সে ক্ষেত্রে মাংস সেদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত সেঁকতে হবে।

আম-পেঁপে মাংস

amitumi_mango meat

উপকরণ: হাড় ও চর্বি ছাড়া গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম, পাকা পেঁপের পিউরি আধা কাপ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, রসুন ও আদাবাটা ২ চা-চামচ, লবণ ১ চা-চামচ বা স্বাদমতো (কম কম), তেল ২ টেবিল চামচ, পানি আধা কাপ।
ম্যাঙ্গো সসের জন্য: পাকা আমের পিউরি এক কাপের একটু কম, ভিনেগার সিকি কাপ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচবাটা আধা চা-চামচ, রসুনের কোয়া ১টি থেঁতো করে নেওয়া, শুকনা মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, ধনেপাতা ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: মাংস টুকরাগুলো ১ বাই ১ ইঞ্চি করে কেটে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। পাকা পেঁপের পিউরি দিয়ে ৮-১০ ঘণ্টা বা সারা রাত মেরিনেট করে রাখুন।
প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ ভেজে নিন। এতে মাংস দিয়ে কষান। মাঝারি আঁচে ২০ মিনিট ঢেকে রান্না করুন। একটু পরপর নেড়ে দিন। লবণ দিন স্বাদমতো।
ম্যাঙ্গো সসের সব উপকরণ ব্লেন্ডারে দিয়ে পেস্ট করে নিন। এটি মাংসে দিয়ে আধা কাপ পানিসহ ঢেকে আরও ১৫ মিনিট রান্না করুন। এবার অল্প আঁচে রান্না করবেন। মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

বেদানা চিংড়ি

amitumi_prawn

উপকরণ: মাঝারি চিংড়ি মাথা ও খোসা ছাড়ানো ১৫-২০টি, তেল ২ চা-চামচ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, পাপরিকা পাউডার ১ চা-চামচ, রসুনকুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ (লাল দেখে) ২টি মিহি কুচি, ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল চামচ, বেদানার দানা ৪-৫ টেবিল চামচ, বেদানার রস ২০ মিলিলিটার বা সিকি কাপ, লবণ আধা চা-চামচ।

প্রণালি: চিংড়িগুলো লবণ, পাপরিকা ও মরিচকুচি দিয়ে ১০ মিনিট মেখে রাখুন। প্যানে তেল গরম করে মাঝারি আঁচে চিংড়িগুলো ৫-৬ মিনিট ভেজে তুলে রাখুন। একই প্যানে এবার পেঁয়াজ-রসুনের কুচি হালকা সোনালি করে ভেজে নিন। এবার ধনেপাতা দিন। বেদানার রস দিয়ে দিন। বলক এলে চিংড়িগুলো দিয়ে আরও ৪-৫ মিনিট ঢাকনা ছাড়া রান্না করুন। ঢাকনা দিলে রং নষ্ট হয়ে যাবে। নামানোর সময় ২ টেবিল চামচ বেদানার দানা দিয়ে নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিন। বাকি বেদানার দানাগুলো পরিবেশনের সময় ওপরে ছড়িয়ে দিন।

সাদা সসে লেবু-মাছ

amitumi_lemon fish

উপকরণ: পছন্দমতো ফিশ ফিলে ২টি (৩৫০-৪০০ গ্রাম), লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, ডিম ১টি, ব্রেড ক্রাম্ব ১ কাপ বা প্রয়োজনমতো, তেল ৪ টেবিল চামচ বা আরও কম, তরল দুধ ১ কাপ, লেমন জেস্ট (লেবুর খোসার সবুজ অংশের কুচি) ১ টেবিল চামচ, ময়দা ৪ চা-চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ, লবণ ১ চা-চামচ।

প্রণালি: ফিশ ফিলে ধুয়ে কিচেন টাওয়াল দিয়ে মুছে সুবিধামতো টুকরা করে নিতে পারেন অথবা গোটাও রাখতে পারেন। এবার এতে লেবুর রস দিয়ে মেখে রাখুন। আধা ঘণ্টা পর মেরিনেট করা মাছ ধুয়ে আবারও মুছে নিন। এবার মাছের ওপর আধা চা-চামচ লবণ ও আধা চা-চামচ গোলমরিচের গুঁড়া ছড়িয়ে দুই পিঠেই মেখে নিন।
আলাদা ৩টি প্লেট নিন। একেকটায় একেক উপকরণ রাখুন। প্রথমটিতে ৩ চা-চামচ ময়দা ছড়িয়ে দিন, আরেকটিতে ডিম ফেটিয়ে ছড়িয়ে দিন। বাকি প্লেটে ব্রেড ক্রাম্ব ছড়িয়ে দিন। ফিশ ফিলেগুলোকে প্রথমে ময়দায় মাখান, এরপর ডিমে চুবান, পরে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে ৩০ মিনিট ফ্রিজে রাখুন। এবার ননস্টিক প্যানে একটু একটু তেল দিয়ে মাঝারি আঁচে ফিলেগুলো ভেজে নিন।
আরেকটি প্যানে মাখন গরম করে ১ চা-চামচ রসুন হালকা করে ভেজে নিন। এবার তাতে ১ চা-চামচ ময়দা ও আধা চা-চামচ লবণ দিন। ৩০ সেকেন্ড ভেজে নিয়ে ১ কাপ দুধ দিয়ে দিন। ১ মিনিট পর বা বলক উঠে গেলে লেমন জেস্ট ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। সাদা সস রেডি।
এবার পরিবেশন পাত্রে ফিশ ফিলেগুলো পাশাপাশি রেখে তার ওপর সাদা সস ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

আলু-মাশরুম ক্রিম কারি

amitumi_mashroom curry

উপকরণ: আলু মাঝারি ১০টি, বাটন মাশরুম ২ কাপ (২ ভাগ করে কেটে নেওয়া), সাদা মাশরুমকুচি ১ কাপ (ইচ্ছা), পেঁয়াজ কিউব আধা কাপ, রসুনকুচি ১ টেবিল চামচ, চিকেন স্টক দেড় কাপ, সরিষাগুঁড়া আধা চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, অরিগেনো ১ চা-চামচ, হেভি ক্রিম আধা কাপ, মাখন ২ টেবিল চামচ, লবণ আধা চা-চামচ।

প্রণালি: আলু ছিলে মাঝ বরাবর কেটে সেদ্ধ করে নিন। প্যানে মাখন দিয়ে গলিয়ে নিয়ে রসুন ও পেঁয়াজকুচি দিয়ে হালকা ভাজুন। সরিষাগুঁড়া দিয়ে নেড়েচেড়ে মাশরুম দিয়ে ১০ মিনিট ভেজে নিন। এবার আলু ও চিকেন স্টক দিয়ে ঢেকে ২ মিনিট রাখুন। এবার গোলমরিচ ও অরিগেনো ছড়িয়ে দিয়ে আরও ৫ মিনিট ঢেকে রান্না করুন। নামানোর আগে ক্রিম ছড়িয়ে মিশিয়ে দিন। লবণ চেখে দেখুন।
এটা ফ্রায়েড রাইস, স্টিমড—যেকোনো রাইস ও পাউরুটির সঙ্গে চমৎকার লাগবে।

নারকেল ভাত

amitumi_coconut rice

উপকরণ: বাসমতী চাল ২ কাপ, নারকেলের ঘন দুধ ১ কাপ, মাখন ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা ১ চা-চামচ (ইচ্ছা), পানি দেড় কাপ।

প্রণালি: পানি ও নারকেলের দুধ মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। এবার তাতে চাল দিন। চাল ফুটে গেলে মাখন ছড়িয়ে দিন। ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

সূত্র: প্রথমআলো

Check Also

মজাদার রসুন ভর্তা তৈরির রেসিপি

গরম ভাতে সুস্বাদু ভর্তার কোনো পদ হলে আর কথা নেই! গপাগপ কখন যে সাবাড় হয়ে …