ওজন কমাতে সকালের নাস্তার ট্রিক্‌স

rupcare_weight loss by breakfast
যদি মোটা হওয়া আটকাতে চান, তাহলে প্রতিদিন সকালের নাস্তা খাওয়ার অভ্যেস করুন। দিনের শুরুতে প্রথম খাবার এড়িয়ে গেলে সারাদিনে বেশি ক্ষুধা লাগতে পারে, ফলস্বরূপ ওজন বাড়ার সম্ভাবনা থাকে।
এক গবেষণায় দেখা গেছে, বয়সে তরুণ প্রাপ্তবয়স্করা যদি প্রোটিন সমৃদ্ধ সকালের নাস্তা খায়, তাহলে মস্তিষ্কে রাসায়নিক স্তর বৃদ্ধির মাধ্যমে পুরস্কারের অনুভুতি জাগায় যা সারাদিনের ক্ষুধাভাব ও অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার ইচ্ছা কমিয়ে দেয়।
“আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে যখন সকালের নাস্তা খাওয়া হয় তখন মিষ্টিজাতীয় খাবার খাওয়ার আগ্রহ নাটকীয়ভাবে কমে আসে।” – বললেন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ মিজরির পুষ্টি ও শরীরচর্চা দেহতত্ব বিভাগের অ্যাসিসটেন্ট প্রফেসর হিদার লেইডি।
লেইডি আরও বলেন, “এছাড়া বেশি প্রোটিনজাতীয় সকালের নাস্তা খাওয়া হলে মসলাদার বা বেশি-চর্বিজাতীয় খাবার খাওয়ার ইচ্ছা কমিয়ে দেয়। অন্যভাবে বলা যায়, যদি সকালের নাস্তা এড়িয়ে যাওয়া হয় তবে সারাদিনে এই ক্ষুধাভাব বাড়তেই থাকে।”
খাবারের জন্য ক্ষুধা লাগার ক্ষেত্রে মস্তিষ্কের রাসায়নিক পদার্থের যে ভূমিকা তা বোঝার ফলে স্থূলতা কমাতে ও চিকিৎসায় সাহায্য করবে।
বিভিন্ন ধরনের সকালের নাস্তা মস্তিষ্কের ডোপামিন লেভেলের উপর কী রকম প্রভাব ফেলে সেটাই ছিল লেইডির গবেষণার বিষয়। ডোপামিন হচ্ছে মস্তিষ্কের রাসায়নিক পদার্থ যা প্ররণা ও পুরস্কারের অনুভূতিসহ খাবার খাওয়ার ইচ্ছা নিয়ন্ত্রণ করে।
এই গবেষণায় অংশ নেওয়া তরুণীদের গড়ে বয়স ছিল ১৯ বছর। তবে লেইডি জানান, এই আবিষ্কার সাধারণভাবে বৃহদাকারে প্রাপ্তবয়ষ্কদের উপরেও কার্যকর।
গবেষণাটি নিউট্রিশন জার্নালে প্রকাশিত হয়।

Check Also

রোজায় যে ৫ ভুল ওজন বাড়ায়

রোজা মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। রোজা রাখার নানা উপকারিতাও বৈজ্ঞানিকভাবেও প্রমানিত। চলছে রোজার …