ব্যায়াম ছাড়াই মুখের ডাবল চিন কমানোর ৩টি উপায় জেনে নিন

amitumi_double chin solution

ওজন বাড়লে মুখে ও গলায় মেদ জমে, দেখা দেয় ডাবল চিনের সমস্যা। আবার অনেকের বাড়তি ওজন ছাড়াই মুখ ও গলার স্থানটি কেমন ভারী ও ফোলা থাকে। বাড়তি মেদ ঝরিয়ে ফেলে মুখকে করে ফেলতে চান আরও স্লিম ও আকর্ষণীয়? তাহলে এই ৩ টি উপায় আপনার জন্যই। না, পার্লারে যেতে হবে না। যা করার করতে পারবেন ঘরে বসেই!

মিল্ক ম্যাসাজ

দুধ দিয়ে ম্যাসাজ করলে আপনার মুখের ত্বক থাকবে টানটান, মুখ থাকবে স্লিম এবং ফিট। একই সাথে ত্বকও হয়ে উঠবে মোলায়েম ও আকর্ষণীয়।

-মুখে কাঁচা দুধ লাগান এবং হালকা হাতে ম্যাসাজ করুন ভালো করে। উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। দিয়ে বেশ কয়েকবার কাজটি করুন প্রতিদিন টানা কয়েক সপ্তাহ।
-এছাড়াও মধু ও কাঁচা দুধ মিলিয়ে প্যাক তৈরি করে রাখতে পারেন। এই প্যাক মুখে মেখে রাখুন ১০ মিনিট। উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই কাজটি রোজ করবেন।

ডিমের সাদা অংশের ফেসমাস্ক

ডিমের সাদা অংশ আপনার মুখের ডাবল চিন দূর করতে ভীষণ সাহায্য করবে, কেননা এটা ত্বককে করে তোলে টানটান।

-দুটি চিমের সাদা অংশ , এক টেবিল চামচ করে মধু, কাঁচা দুধ ও লেবুর রস একত্রে মিশিয়ে নিন।
-কয়েক ফোঁটা পিপারমিনট এসেনশিয়াল অয়েল যোগ করুন। (দিতে পারলে ভালো, না দিলেও চলবে।)
-এই মিশ্রণটি ভালো করে মুখে ও গলায় মেখে নিন। ৩০ মিনিট রাখুন।
-৩০ মিনিট পর মুখ ভালো করে উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে মুছে নিন। দ্রুত ফল পেতে রোজ ব্যবহার করুন।

গ্লিসারিন ফেসপ্যাক

মুখের ডাবল চিন দূর করতে ম্যাজিকের মত কাজ করে গ্লিসারিন

-১ টেবিল চামচ গ্লিসারিনের সাথে ১/২ চা চামচ ইপসাম সল্ট ও কয়েক ফোঁটা পিপারমিনট এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন। ইপসাম সল্ট সুপার শপ ও বড় ওষুধের দোকানে কিনতে পাবেন।
-এই মিশ্রন কটন প্যাডের সাহায্যে সমস্যা আক্রান্ত স্থানে লাগান।
-৫ থেকে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন যেন ত্বক মিশ্রণটি শুষে নিতে পারে।
-তারপর সাধারণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
-সপ্তাহে ৩ থেকে ৫ বার ব্যবহার করুন, ম্যাজিকের মত ফল পাবেন।

এছাড়াও প্রচুর পানি পান করবেন। পানি আপনার ত্বক টানটান রাখবে। বসার সময় মেরুদণ্ড একদম সোজা করে মাথা উঁচু করে বসবেন, এতে মুখের ও গলার মেদ অনেকটাই কম মনে হবে। দিনে দুবেলা গ্রিন টি পান করবেন। এটা আপনার ওজন কমাতে সহায়ক হবে। ওজন কমলে ডাবল চিনও চলে যাবে। সুগার ফ্রি চুইং গাম চিবুতে হবে দিনে ২ বেলা। এতে ভালো উপকার পাবেন। চিবিয়ে খেতে হয় এমন খাবার অধিক খাবেন। যেমন, পেয়ারা বা এমন শক্ত ফল।

Check Also

ফর্সা ত্বক চান? মেনে চলুন এই ৩ নিয়ম

আবহাওয়ার খামখেয়ালি প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকেও। এই রোদ, বৃষ্টি, ধুলোবালি- সবকিছুর সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে …