‘এঞ্জেল ফ্রুট’ পেঁপের দারুন সব উপকারিতা জেনে নিন

rupcare_papaya care
পেঁপের সুমিষ্ট স্বাদ এবং উপকারিতার জন্য ক্রিস্টোফার কলম্বাস পেঁপেকে ‘দি ফ্রুট অফ দি এঞ্জেলস’ বলে অভিহিত করেছেন। আমাদের স্বাস্থ্য, ত্বক ও চুলের জন্য পেঁপে অনেক উপকারি। শুধুমাত্র পেঁপের ফলই না পেঁপে গাছের অন্যান্য অংশও অনেক উপকারি। যেমন- প্রোটিন বিপাকে পেঁপের এনজাইম ‘পাপাইন’ অনেক উপকারি, এই এনজাইম পেঁপে গাছ ও ফল থেকে নিষ্কাশিত হয় এবং ডায়েটারি সাপ্লিমেন্ট তৈরিতে ব্যবহৃত হয় এবং চুইংগাম তৈরির প্রধান উপাদানও এটি। পাপাইন ছাড়াও এতে ক্যারোটিন নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি ও ফ্লাভোনয়েড, বি ভিটামিন, ফলেট ও পেন্টোথেনিক এসিড, খনিজ উপাদান, পটাসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম এবং ফাইবার আছে। পেঁপের কোমল মজ্জা অনেক শ্যাম্পু ও ক্রিম তৈরির মুল উপাদান। আসুন আজ আমরা জেনে নেই পেঁপের সৌন্দর্য ও স্বাস্থ্য উপকারিতা গুলো।
ত্বকের ক্ষেত্রে পেঁপের উপকারিতা গুলো
১। ত্বকের পুষ্টি
পেঁপেতে ভিটামিন এ ও পাপাইন এনজাইম থাকে যা ত্বকের মরা চামড়া দূর করে স্কিন কে রিজুভিনেট করে এবং ত্বককে আদ্রতা প্রদান করে। আপনি যদি উজ্জ্বল ত্বক চান তাহলে পেঁপে ও মধুর মাস্ক ব্যবহার করুন।
· একটি পেঁপের অর্ধেক অংশের সাথে ৩ চামচ মধু মিশিয়ে ভালোভাবে পেস্ট তৈরি করুন
· আপনার মুখে ও ঘাড়ে আস্তে আস্তে লাগান
· ২০ মিনিট রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন
২। ত্বকের খুঁত দূর করে
ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কাঁচা পেঁপে খুব ভালো করে থেঁতলে নিয়ে মুখে লাগিয়ে আধা ঘন্টা বা এক ঘন্টা রাখুন। এটা ব্রণের পাশাপাশি ত্বকের অন্য সমস্যা ও দূর করবে।
৩। অ্যান্টি এইজিং এজেন্ট
পেঁপে ত্বকের বয়স বৃদ্ধি রোধ করতে পারে। পেঁপে ম্যাশ করে দুধের সাথে মিশিয়ে মুখে লাগান। এটা স্কিন টোনার হিসেবে কাজ করে ত্বকের দাগ দূর করে ও ত্বককে টান টান করে।
চুলের ক্ষেত্রে পেঁপের উপকারিতা গুলো
১। চুল লম্বা করে
এক গবেষণায় পাওয়া গেছে যে, পেঁপের পুষ্টি উপাদান চুল পরা বন্ধ করে। সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন পেঁপে ফল খেলে চুল পাতলা হওয়া কমে যাবে।
২। খুশকি দূর করে
পেঁপের মাস্ক ব্যবহার করলে মাথার তালুর শুষ্কতা ও চামড়া উঠা দূর করে। একটি কাঁচা পেঁপের বীচি গুলো ফেলে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন, এর সাথে এক কাপ দই মিশিয়ে মাস্কটি চুলে ও মাথার তালুতে ভালোভাবে লাগান এবং ৩০ মিনিট রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৩। প্রাকৃতিক কন্ডিশনার
যেহেতু পেঁপেতে ভিটামিন, মিনারেল ও এনজাইম আছে তাই পেঁপে প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করতে পারে যা আপনার চুলকে নরম ও মসৃণ করবে। পেঁপের সাথে কলা, দই ও নারিকেল তেল ভালোভাবে ব্লেন্ড করে চুলে লাগান। তারপর চুল তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে রাখুন বা শাওয়ার কেপ পরে থাকুন যাতে মাথার তালুতে তাপ লাগে। তারপর উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।পেঁপে পাতার রস ও কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে।
পেঁপের পেস্ট পা ফাটা দূর করতে পারে। পেঁপের খোসা শুধু মুখ না পা কেও ফর্সা করতে সাহায্য করে। পেঁপেতে প্রদাহ রোধী উপাদান ও ক্যান্সার রোধী উপাদান আছে। পেঁপে কোষ্ঠ কাঠিন্য দূর করে। নিয়মিত পেঁপে খেলে ত্বক নরম ও কোমল হয়।

Check Also

আজীবন লাবণ্য ধরে রাখার দারুণ উপায়

স্বাভাবিক সৌন্দর্য অথবা উজ্জ্বল ত্বক যে কাউকে সহজে আকৃষ্ট করে। তাইতো সৌন্দর্য ধরে রাখতে সবাই …