ঘরে তৈরি করে ফেলুন ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফেইসওয়াশ

rupcare_face wash


আমাদের ত্বককে অনেক কিছু সহ্য করতে হয়। ধুলা বালি, ময়লা, রোদ, বৃষ্টি এই সবকিছু আমাদের ত্বকের উপর দিয়ে যায়। যার কারণে মলিন, নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে ত্বক। ত্বক সুস্থ রাখার জন্য তাই প্রয়োজন পড়ে নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার করার। আর এই পরিষ্কারের কাজটি করে থাকে ফেইসওয়াশ। বাজারে নানা ব্র্যান্ডের ফেইসওয়াশ কিনতে পাওয়া যায়। আপনি নিয়মিত বাজারের ফেইসওয়াশ ব্যবহারও করে থাকেন। কিন্তু সবসময় কেনা ফেইসওয়াশ ত্বকে মানিয়ে যায় না। আবার ত্বকে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও পড়ে থাকতে পারে বাজারের ফেইসওয়াশ ব্যবহারে। তারচেয়ে ঘরে তৈরি করে নিতে পারেন নিজের পছন্দের ফেইসওয়াশ। প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি বিধায় এটি শতভাগ নিরাপদ।
১। শসা এবং পুদিনা পাতা
টকদই এবং শসা আপনার ত্বককে নরম কোমল করে তুলে। ১/২ কাপ টকদই, ১/২ কাপ খোসা ছড়ানো শসা এবং ৬টি পুদিনা পাতা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করুন। এটি দিয়ে ত্বকে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য এটি খুব কার্যকরী।
২। নারকেল তেল এবং মধু
৩ টেবিল চামচ নারকেল তেল, ১ চা চামচ মধু, ১ চা চামচ বেকিং সোডা। নারকেল তেল চামচ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এমনভাবে মেশাবেন যেন ফেনা উঠে। এরপর এতে মধু, বেকিং সোডা দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার এটি ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন।
৩। আভাকাডো ফেইসওয়াশ
একটি আভাকাডো চটকিয়ে নিন। এরসাথে অল্প পরিমাণে লেবুর রস এবং মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার এটি ত্বকে লাগান। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি শুষ্ক এবং সেনসিটিভ ত্বকের জন্য বেশ কার্যকর।
৪। টকদই এবং আপেল
১/৪ কাপ টকদই, ১ চা চামচ অলিভ অয়েল, ১ চা চামচ মধু এবং ১টি আপেল কুচি ভাল করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করুন। এটি ত্বকে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। কয়েক মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। টকদই প্রাকৃতিক পরিষ্কারক এবং এর প্রোটিন উপাদান ত্বককে নরম কোমল করে তোলে। এটি শুষ্ক ত্বকের জন্য বেশ কার্যকরী।
৫। মধু এবং দুধ
অতিরিক্ত শুষ্ক ত্বকের জন্য দুধ এবং মধু বেশ কার্যকরী। দুধ, মধু এবং টকদই ভাল করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রে এর সাথে লেবুর রস মেশাতে পারেন। দুধ এবং টকদই প্রাকৃতিক পরিষ্কারক হিসবে কাজ করবে। লেবুর রস ত্বকের দাগ দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

Check Also

যে জুস নিয়মিত সেবনে বয়স বাড়বে না ত্বকের

গ্রীষ্মকাল এসে গিয়েছে। এই সঙ্গে আইসক্রিম, শরবত, কুলফি ধীরে ধীরে আমাদের বাড়ির ফ্রিজের অনেকটা জায়গা …