বিশেষ রাতের জন্য তৈরী করুন দারুণ স্বাদের টার্কিশ ডিলাইট (ভিডিওসহ রেসিপি)

amitumi_turkish delight

পৃথিবীজোড়া বিখ্যাত একটি মিষ্টি হলো টার্কিশ ডিলাইট। এটা অনেক পুরনো একটি খাবার এবং আমাদের দেশেও টার্কিশ ডিলাইট পাওয়া যায় কিছু কিছু জায়গায়। গতানুগতিক হালুয়া না তৈরি করে আপনি নিজেই ঘরে তৈরি করে ফেলতে পারেন টার্কিশ ডিলাইট। এর জন্য কিছুটা ধৈর্য দরকার হবে বটে। কিন্তু এর ফলাফল হবে অসাধারণ।

উপকরণ

– ৮০০ গ্রাম কাস্টর সুগার
– ২ টবিল চামচ লেবুর রস
– ১৪০ গ্রাম কর্নফ্লাওয়ার
– দেড় চা চামচ ক্রিম অফ টারটার গুঁড়ো
– ২ টেবিল চামচ গোলাপ জল
– গোলাপি ফুড কালার
– ১ চা চামচ সাইট্রিক এসিড গুঁড়ো
– আইসিং সুগার দরকারমত

প্রণালী

১) কাস্টর সুগার এবং দেড় কাপ পানি একটি নন-স্টিক প্যানে নিয়ে ফুটিয়ে নিন। ফুটে ওঠার পর লেবুর রস দিন। ৩০ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে দিন অথবা ক্যান্ডি থার্মোমিটার বা সুগার থার্মোমিটারে ১১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে আসার পর চুলা বন্ধ করে দিন।
২) আরেকটি পাত্রে কর্নফ্লাওয়ার, ক্রিম অফ টারটার এবং দুই কাপ পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার একটি ইলেকট্রিক বিটার ব্যবহার করুন। বিট করতে থাকলে মিশ্রণ ঘন এবং আঠালো হয়ে আসবে। আঠালো হয়ে এলে এর মাঝে চিনির মিশ্রণটি দিয়ে দিন এবং ভালো করে মিশিয়ে নিন।
৩) এবার খুব ধৈর্য ধরে রান্না করতে হবে। খুব কম আঁচে নাড়তে থাকুন মিশ্রণটিকে। ক্রমাগত নাড়ুন নয়তো পুড়ে যেতে পারে। প্রায় ঘন্টাখানেকের মাঝে মিশ্রণটি সোনালি হয়ে আসবে এবং পাত্রের মাঝামাঝি অংশে ঘন হয়ে আসবে। এ সময়ে চুলা থেকে নামিয়ে নিন পাত্রটি।
৪) এবারে এতে রং ও ফ্লেভার যোগ করার পালা। প্রথমে গোলাপজল দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর নিজের ইচ্ছেমত রং দিয়ে দিন, হালকা বা গাড় রং করতে পারেন। সবার শেষ সাইট্রিক এসিড ডিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।
৫) একটি ট্রেতে বেকিং পেপার দিয়ে এর ওপরে তেল মাখিয়ে নিন। তাতে মিশ্রণটি ঢেলে নিন এবং নেড়েচেড়ে সমান করে নিন। এবার এটাকে রেখে দিন। সারারাত রেখে দিতে পারলে ভালো হয়।
৬) পরের দিন দেখবেন এটা শক্ত হয়ে গেছে কিন্তু কিছুটা চটচট করছে। কাটিং বোর্ডের ওপর আইসিং সুগার ছড়িয়ে এর ওপর ট্রে থেকে নামিয়ে নিন পুরোটা। একটি ছুরিতে তেল মাখিয়ে পছন্দমত আকৃতিতে কেটে নিন। কাটা টুকরোগুলোকে আবারও আইসিং সুগারে গড়িয়ে নিন।

ব্যাস, তৈরি হয়ে গেলো মজাদার টার্কিশ ডিলাইট। সাথে সাথে উপভোগ করতে পারেন অথবা প্রতিবেশি ও আত্মীয়দের বাড়িতেও পাঠাতে পারেন সুন্দর ও সুস্বাদু এই মিষ্টি।

টিপস:
এটা সাধারণ টার্কিশ ডিলাইটের রেসিপি। ইচ্ছে হলে রং ও ফ্লেভার মেশানোর সময়ে আপনি বাদাম কুচি, কিসমিস, শুকনো ফলের টুকরোও মিশিয়ে নিতে পারেন।

ভালো করে বুঝতে দেখে নিন রেসিপির ভিডিওটি।

https://youtu.be/Ksl7OxoWfbM

Check Also

মজাদার রসুন ভর্তা তৈরির রেসিপি

গরম ভাতে সুস্বাদু ভর্তার কোনো পদ হলে আর কথা নেই! গপাগপ কখন যে সাবাড় হয়ে …