দুই যুগ পর ঢাকার চলচ্চিত্রে অঞ্জু ঘোষ

চিত্রপরিচালক সাঈদুর রহমান সাঈদের ‘মধুর ক্যান্টিন’ নামে একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। মধুর কান্টিনের প্রতিষ্ঠাতা মধুসূদন দে’র স্ত্রী যোগমায়ার চরিত্রে অভিনয় করবেন নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।

পরিচালক সাঈদুর রহমান সাঈদ এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “গতবার যখন ঢাকায় এসেছিলেন উনি তখন আমার বাসায় ছিলেন। তখনই ছবির ব্যাপারে চূড়ান্ত কথাবার্তা হয়েছে।”

রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত মহরত অনুষ্ঠানে পরিচালক জানান, মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে ছবিটি নির্মাণ করা হবে।

যোগমায়ার চরিত্রে অঞ্জু ঘোষকে কেন বেছে নিলেন?

পরিচালক বলেন, “প্রচুর ছবি করেছি ওর সঙ্গে। তার সঙ্গে আন্ডারস্টান্ডিং ভালো; সে কারণেই।”

১৯৯৬ সালে মায়ের চিকিৎসা করাতে কলকাতায় গিয়ে আর ঢাকায় ফেরেনি অঞ্জু ঘোষ। প্রায় দুই যুগ পর চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ঢাকায় ফিরেছিলেন তিনি। এফডিসিতে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি তাকে আজীবন সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে সম্মানিত করে।

অনুষ্ঠানে গনমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঢাকার চলচ্চিত্রে ফেরার ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেছিলেন, “আমি বাংলাদেশে ফিরবো, ফিরতেই হবে। যেসব আনন্দের খবর শুনছি আর ইন্ডাস্ট্রির এমন অবস্থা, ফিরবো।”

ডিসেম্বরের নির্বাচনের পর পর শুটিংয়ের তারিখ নির্ধারণ করা হবে ছবিটির। আগামী বছরের শুরুতেই শুটিং ইউনিটে যোগ দেবেন অঞ্জু ঘোষ।

এতে তার বিপরীতে মধু দা’র চরিত্রে অভিনয় করবেন ওমর সানি। একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে চিত্রনায়িকা মৌসুমীকে। পরিচালনার পাশাপাশি ছবির চিত্রনাট্যও লিখেছেন সাঈদ।

ফরিদপুর জেলায় জন্ম নেওয়া অঞ্জু ঘোষ ১৯৭২ সালে যাত্রায় অভিনয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন। চলচ্চিত্রে আসেন ১৯৮২ সালে, এফ কবির চৌধুরী পরিচালিত ‘সওদাগর’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে।

১৯৮৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ তার সবচেয়ে আলোচিত সিনেমাগুলোর একটি। সেই সিনেমায় তার নায়ক ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

দেশ ছাড়ার আগে তিনি বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘বড় ভালো লোক ছিলো’, ‘আবে হায়াত’, ‘প্রাণ সজনী’, ‘ধন দৌলত’, ‘চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা’, ‘রক্তের বন্দি’, ‘আওলাদ’, ‘চন্দনা ডাকু’, ‘মর্যাদা’, ‘নিয়ত’, ‘দায়ী কে’, ‘কুসুমপুরের কদম আলী’, ‘অবরোধ’, ‘শিকার’, ‘রঙ্গিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা’, ‘চোর ডাকাত পুলিশ’, ‘শঙ্খমালা’, ‘আদেশ’, ‘আয়না বিবির পালা’, ‘এই নিয়ে সংসার’ ও ‘প্রেম যমুনা’।

Check Also

কিরণমালা নয় এবার ঈদের পোশাকের নাম এবার ফেসবুক, মেসেঞ্জার ও থ্রিজি!

গেল ঈদে ভারতীয় টিভি চ্যানেলের নায়িকাদের নামের পোশাকের বেশ কদর ছিল। জল নূপুর, কিরণ মালা, …