কলার ফেসপ্যাকে দূর করুন মুখের অবাঞ্ছিত লোম!

মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার জন্য কত কিছুই তো করে থাকেন নারীরা। কিন্তু তা সত্ত্বেও পুরোপুরি কি তা দূর হয়? মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার বেশীরভাগ পদ্ধতিই বেশ যন্ত্রণাদায়ক। যেমন, থ্রেডিং ও অন্যান্য। অন্যদিকে কিছুদিন পর লোম আবার ফিরেও আসে, কদিন পরপরই ছুটতে হয় পার্লারে। আজ বিউটিশিয়ান নিশাত জান্নাত জানাচ্ছেন এমন একটি জাদুকরী ফেসপ্যাকের কথা, যা কিনা মুখের অবাঞ্ছিত লোম চিরতরেই দূর করে দেবে।

হ্যাঁ, নিয়মিত সপ্তাহে দুদিন করে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার চালিয়ে গেলে অবাঞ্ছিত লোম নিয়ে কখনো দুশ্চিন্তা করতে হবে না আপনাকে। এই ফেসপ্যাকের মূল উপাদান হচ্ছে কলা। আরও আছে ওটমিল, মধু ও সহজলভ্য কিছু উপাদান। চলুন, জেনে নিই বিস্তারিত।

যা লাগবে

সাগর কলা অর্ধেকটি/ চম্পা কলা হলে ১ টি (সবরি কলা নেয়া যাবে না)
ওটমিল প্রয়োজনমত (ইন্সট্যান্ট ওটস নয় কিন্তু)
সরিষা ফুলের মধু ১ চা চামচ
চালের গুঁড়ো ১ চা চামচ
ভিটামিন ই যুক্ত অ্যালোভেরা জেল ও গোলাপ জল প্রয়োজনমত

প্রনালি

কলাকে ভালো করে ভর্তা করে নিন।
এবার কলার সাথে ওটমিল, মধু ও চালের গুঁড়ো মিশিয়ে আঠালো পেস্ট তৈরি করে নিন।
এই মিশ্রণ সাথে সাথে মুখের লোমযুক্ত স্থানে মেখে নিন। পুরো মুখেও মাখতে পারেন।
শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে হাত দিয়ে ঘষে ঘষে শুকনো ফেসপ্যাক মুখ থেকে তুলে নিন। পানি দেবেন না।
সম্পুর্ন প্যাক তোলা হয়ে গেলে স্বাভাবিক পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।
মুখ মুছে সামান্য একটু অ্যালোভেরা জেল ও গোলাপ জল মিশিয়ে মুখে মেখে নিন। এটা খুব জরুরী। অন্যথায় ত্বক রুক্ষ্ম হয়ে যেতে পারে।

টিপস

এই প্যাক মুখের লোম তোলার পাশাপাশি মৃত কোষও পরিষ্কার করে থাকে। ফলে ত্বক হয়ে ওঠে ফর্সা ও টান টান। চালের গুঁড়ো ব্যবহার না করলেও কোন অসুবিধা নেই।

পরামর্শ দিয়েছেন-
নিশাত জান্নাত
বিউটিশিয়ান ও এরোমা থেরাপিস্ট
রূপকথা’স বিউটি সিক্রেট

Check Also

চোখের নিচের কালি দূর করার ৩ প্যাক

স্ট্রেস, ঘুম না আসাসহ নানা কারণে চোখের নিচে কালি জমতে পারে। আর এটি একবার পড়তে …