বাড়িতেই করে নিন হেয়ার স্মুথনিং

ভেসে যাওয়ার মত নরম চুল পাওয়া সবারই ইচ্ছে | চুলের কোমলতা চুলের স্বাস্থ্যকেও প্রতিফলিত করে | কিন্তু ধোঁয়া ধুলো দূষণের প্রকোপে আমাদের চুল যত্নের অভাবে রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যেতে থাকে | তখনই আমরা চুলের যত্ন নিতে ছুটি সালোঁ বা পার্লারে | দিনের পর দিন ক্ষতিকারক কেমিক্যালযুক্ত প্রডাক্ট ব্যবহারের ফলে আমাদের চুল আরও খারপ হয়ে যেতে থাকে | এই সমস্যার হাত থেকে মুক্তি পেতে আসুন জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু পদ্ধতির কথা যাতে করে বাড়িতে বসে প্রাকৃতিক উপাদানের মাধ্যমে আপনি আপনার চুলকে করে তুলতে পারবেন কোমল ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল |

১| অর্ধেক কাপ নারকোলের দুধের সঙ্গে ১ চামচ পাতিলেবুর রস মিশিয়ে মিশ্রণ বানিয়ে নিন | মিশ্রণটি সারারাত ফ্রিজে রেখে দিন | পরদিন সকালে চুলের ডগা থেকে গোড়া পর্যন্ত লাগিয়ে নিন এই মিশ্রণ | শাওয়ার ক্যাপ পরে ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট রেখে দিন | হালকা কোনও শ্যাম্পূ ব্যবহার করে চুল ধুয়ে নিন | শুধু নারকোলের দুধ ফ্রিজে রেখে দিয়ে ক্রিমের মত গাঢ় মিশ্রণ বানিয়েও সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করতে পারেন | নারকোলের শাঁসে থাকা ভিটামিন বি ১‚ বি ৩‚ বি ৫‚ বি ৬‚ ভিটমিন ই ‚ ক্যালশিয়াম‚ আয়রন‚ ম্যগনেশিয়াম‚ ফসফরাস ইত্যাদি উপাদানগুলি চুলকে কোমল রাখতে সহায়তা করে | পাতিলেবুর রসে থাকা ভিটামিন ই ও লিমোনিন চুলের রুক্ষতা দূর করে নরম করে তোলে |

২| একটি ডিমের সাদা অংশটির সঙ্গে ১ চামচ অলিভ অয়েল ও ১ চামচ মধু মিশিয়ে গাঢ় করে মিশ্রণ তৈরি করে নিন | এই মিশ্রণটি ভাল ভাবে পুরো চুলে ও স্ক্যাল্পে লাগিয়ে নিন | শাওয়ার ক্যাপ পরে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট রেখে হাল্কা কোনও শ্যাম্পূ ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন | ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে আমন্ড অয়েল ও দই বা দুধ ও মধু মিশিয়েও মিশ্রণ বানিয়ে চুলে লাগাতে পারেন | ডিমের সাদা অংশের ভিটামিন এ ‚ বি‚ ই ও ফ্যাটি অ্যাসিড চুলকে নরম করতে খুবই কাজে আসে |

৩| ২ চামচ ক্যাস্টর অয়েল ও ২ চামচ নারকোল তেল মিশিয়ে নিয়ে মিশ্রণটিকে উষ্ণ গরম করে নিন | এবারে তেলের এই ঈষদুষ্ণ মিশ্রণটি মাথার স্ক্যাল্পে লাগিয়ে সারকুলার মোশনে ভাল ভাবে মাসাজ করুন | আধ ঘন্টা রেখে শ্যাম্পূ করে চুল ধুয়ে নিন | নারকোল তেলে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট‚ ভিটামিন ই ও কে চুলকে মোলায়েম করে তুলতে সহায়ক | ক্যাস্টর অয়েলও চুলকে নরম করে তুলতে সাহায্য করে | স্ক্যাল্পে মাসাজ করলে রক্ত চলাচল ভাল হয়‚ চুলও ভাল থাকে |

৪| একটি কলা ভাল ভাবে চটকে বা ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন | এবার কলার মিশ্রণে যোগ করুন ২ বা ৩ চামচ অলিভ অয়েল | অলিভ অয়েলের পরিবর্তে দই অথবা আমন্ড অয়েল ও মধুও যোগ করতে পারেন | মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে নিয়ে আধ ঘন্টা রেখে হাল্কা কোনও শ্যাম্পূ ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন | সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার এই মিশ্রণটি ব্যবহার করুন | কলায় থাকা পটাশিয়াম‚ ক্যালশিয়াম‚ ভিটামিন‚ কার্বোহাইড্রেট‚ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট চুলকে নরম করে তুলতে সাহায্য করে |

৫| অর্ধেক কাপ টাটকা অ্যালোভেরা জেল নিন | এতে যোগ করুন ৩ চামচ দই ও ২ চামচ নারকোল তেল | অথবা যোগ করতে পারেন ১ টি ডিমের কুসুম ও ২ থেকে ৩ চামচ ঈষদুষ্ণ অলিভ অয়েল | এবারে উপাদানগুলিকে ভাল ভাবে মিশিয়ে নিয়ে মিশ্রণটিকে গোটা চুলে লাগিয়ে নিন | ৩০ থেকে ৪০ মিনিট রেখে হাল্কা শ্যাম্পূ ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন | সপ্তাহে ২ বার এই মিশ্রণ ব্যবহার করার চেষ্টা করুন | ভিটামিন‚ মিনারেল ও বিবিধ নিউট্রিয়েন্ট সমৃদ্ধ অ্যালোভেরা চুলকে নরম করতে খুবই কার্যকরী |

তাহলে দেখলেন তো পার্লার বা সালোঁতে না গিয়ে‚ ক্ষতিকারক কেমিক্যাল সম্পন্ন প্রডাক্ট ব্যবহার না করেও একেবারে ঘরোয়া পদ্ধতিতেই কীভাবে আমার চুলকে কোমল করে তুলতে পারি | তবে আর দেরি কেন | পদ্ধতিগুলি ব্যবহার করেই দেখুন না সুফল মেলে কিনা |

Check Also

কমবে চুল পড়া, বাড়বে চুলের বৃদ্ধি

চুল ঝরে পড়ছে? ঘরোয়া যত্নে কমাতে পারেন চুল পড়া। নিয়মিত তেল ম্যাসাজের পাশাপাশি প্রাকৃতিক উপাদানের …