দুপুরে খাওয়ার পরে যে কাজগুলো করবেন না

দুপুরে খাওয়ার পরপরই কিছু কাজ করা আমাদের অভ্যাস হয়ে যায়। যেমন ফলমূল বা কফি খাওয়া, বিছানায় একটুখানি গড়াগড়ি করে নেয়া ইত্যাদি। কিন্তু খাওয়ার পরে না জেনেই আমরা এমনকিছু কাজ করি যা আসলে আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ ক্ষতিকর।

আর এই ক্ষতিকর স্বভাবগুলো আমাদের শরীরের রক্ত সঞ্চালনের অস্বাভাবিকতা থেকে শুরু করে, হার্টের অসুস্থতা, মেদবাহুল্য ইত্যাদি নানা সমস্যা ডেকে আনে। তাই সচেতনতার শুরু হোক আজ থেকেই। জেনে নিন কোন কাজগুলো খাওয়ার পরে করা যাবে না-

গোসল করা যাবে না
খেয়ে উঠে গোসল করার অভ্যাস অনেকেরই। এতে শরীরের রক্ত সঞ্চালনের মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে পাকস্থলিতে রক্তের পরিমাণ বাড়ে। তাই খেয়ে উঠেই গোসল করলে হজমের সমস্যা হয়। শরীরের বিপাক হারকেও সমস্যায় ফেলে এই অভ্যাস।

ফল খাওয়া যাবে না
খালি পেটে ফল খেলে সমস্যা হতে পারে ভেবে অনেকেই ভরা পেটে ফল খেয়ে থাকেন। ফল এমনিতেই অ্যাসিডিক। ভরপেট খাওয়ার পরেই ফল খেলে শরীরে অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ায়। তাই খাওয়ার প্রায় এক-দুই ঘণ্টা পর ফল খেলে তবেই উপকার পাবেন।

শরীরচর্চা করা যাবে না
ভরা পেটেই শরীরচর্চা করার স্বভাব থাকলে সে অভ্যাস আজই পরিত্যাগ করুন। এতে উপকার তো হয়ই না, উল্টো শরীরকে কষ্ট দেওয়ার পাশাপাশি হজম প্রক্রিয়াকেও ব্যাহত করে।

খেয়ে উঠেই ঘুম নয়
খেয়ে উঠে ঘুমিয়ে পড়াও ভালো নয়। এতে মেদ জমার আশঙ্কা বাড়ে। বরং খাওয়ার পর অল্প হাঁটাহাঁটি করুন। এতে খাবারকে পাকস্থলী পর্যন্ত পৌঁছতে সাহায্য করাও হবে আবার তাকে হজমের উপযুক্ত করে তুলতে পারবেন।

ধূমপান থেকে বিরত থাকতে হবে
এমনিতেই ধূমপান করা একেবারেই উচিত নয়। তার উপর অন্য সময় ধূমপান শরীরের যে পরিমাণ ক্ষতি করে, ভরপেট খাওয়ার পর ধূমপান করলে সে ক্ষতি বেড়ে যায় কয়েক গুণ। কারণ ওই সময় শরীরের বিপাকক্রিয়া শুরু হয়, তখনই তামাকের ধোঁয়া শরীরে গেলে তা আরও বেশি বিপজ্জনক।

Check Also

জেনে নিন ডেঙ্গু হলে রক্তে প্লাটিলেট বাড়াতে কোন খাবার উপযোগী

ডেঙ্গু হেমোরেজিক ফিভার আক্রান্ত বেশিরভাগ রোগীরই রক্তে প্লাটিলেটের সংখ্যা কমে যায়। একজন সুস্থ মানুষের রক্তে …