Advertisements

ব্রেক-আপের পর প্রিয় মানুষটিকে ফিরে পাবেন কীভাবে?

chobi-1753309714 ব্রেক-আপের পর প্রিয় মানুষটিকে ফিরে পাবেন কীভাবে?

ব্রেক-আপ মানেই সম্পর্কের শেষ নয়। প্রায়ই এমন হয় যে সম্পর্ক শেষ হয়ে গেলেও প্রিয় মানুষটিকে আমরা ভুলতে পারি না। রাগ কিংবা অভিমান কমে গেলে তখন আবার প্রিয় মানুষটিকে ফিরে পাওয়ার জন্যে ব্যাকুল হয়ে পড়ি। কিন্তু চাইলেই কি আর ফিরে পাওয়া যায়?

হয়তো যায়। নিদেনপক্ষে প্রিয় মানুষটিকে আবারো ফিরে পেতে খানিকটা চেষ্টা করাই যায়। তবে হ্যাঁ, ঠিক চেষ্টায় যেমন সম্পর্কটি জোড়া লাগার একটি সম্ভাবনা থাকে, তেমনি ভুল চেষ্টায় আজীবনের জন্যে ভেস্তে যেতে পারে সব। তাই প্রতিটি পদক্ষেপ নিতে হবে সাবধানে। আজকের ফিচারে থাকছে বিস্তারিত।

চাপ দেবেন না

প্রাক্তন মানুষটিকে ফিরে পাওয়ার প্রথম শর্ত এই যে, তাড়াহুড়ো করবেন না বা তাকে চাপ প্রয়োগ করবেন না। মনে রাখবেন, চাপ প্রয়োগ করে কখনো ভালোবাসা পাওয়া যায় না কিংবা সম্পর্ক জোড়া দেওয়া যায় না। সম্পর্ক যখন ভেঙেছে, নিশ্চয়ই উপযুক্ত কারণ আছে বলেই ভেঙেছে। চাপ দিয়ে পরিস্থিতি আরও খারাপ করে তুলবেন না।

যদি আপনার ভুল থাকে

সম্পর্ক জোড়া লাগুক বা না লাগুক, প্রিয় মানুষটির মন থেকে তিক্ত অনুভুতি মুছে দেওয়াটা খুবই জরুরি। যদি আপনার ভুল হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে অবশ্যই আন্তরিকভাবে ক্ষমা চান। আপনার সেই সময়কার অনুভবগুলো তাকে বুঝিয়ে বলুন। মনে রাখবেন, ক্ষমা চাইলে কেউ ছোট হয়ে যায় না। বিশেষ করে প্রিয় মানুষকে কষ্ট দিয়ে থাকলে ক্ষমা চাওয়া বাঞ্ছনীয়। আপনার এই চেষ্টা প্রিয় মানুষটিকে ফিরিয়ে আনতেও পারে।

Advertisements

যদি তার ভুল থাকে

প্রিয় মানুষের ভুল থাকলে ক্ষমা করতে শিখুন। মন থেকে ক্ষমা করতে না পারলে সম্পর্ক জোড়া দেওয়ার কথা ভাববেন না। যদি সত্যিই ক্ষমা করতে পারেন, সেক্ষেত্রে মানুষটিকে তা জানান। এতে অনেক ক্ষেত্রেই সম্পর্ক আবার ঠিক হয়ে যায়।

আবারও শুরু হোক প্রথম থেকে

সম্পর্ক যেমন একদিনে ভাঙে না, তেমনি একদিনে ঠিক করাও যায় না। তাই ঠিক করার জন্যে চাপ না দিয়ে মানুষটিকে সময় দিন। আবারও প্রথম থেকে শুরু হোক বন্ধুত্ব, আবারও তাকে নিয়ে যান প্রথম ডেটে। সময় দিন, মন ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করুন, তাকে খুশি করার চেষ্টা করুন। আবারও ফ্লার্ট করুন। প্রয়োজনে আবারও প্রপোজ করুন।

সৎ থাকুন

দ্বিতীয়বার যখন সম্পর্ক শুরু করবেন, তখন সবচেয়ে জরুরি সততা। অতীতে যাই ঘটুক না কেন, দ্বিতীয়বারে চাই অনেক বেশি সাবধানতা। আগের চেয়েও মজবুত সম্পর্ক গড়ে তুলতে সততার বিকল্প নেই।

তার ইচ্ছেকে গুরুত্ব দিন

প্রিয় মানুষটি যদি যোগাযোগ রক্ষা করতে চায়, তবে ভালো। যদি না করতে চায়, তাহলে সম্মানের সঙ্গে সরে দাঁড়ান। মনে রাখবেন, আপনার অনুভুতি আগের মতো রইলেও তারটা নাও থাকতে পারে। এজন্য তার ইচ্ছেকে গুরুত্ব দিন।

একবার সম্পর্ক ভেঙে গেলে আর কখনোই জোড়া লাগবে না, বিষয়টি এমন নয়। তবে এর জন্যে চাই সময় ও আন্তরিক চেষ্টা। ভালোবাসার মনোমালিন্য দূর করতে সততা ও সময়ের বিকল্প নেই।

Advertisements

Check Also

গবেষণা: কুকুরের লোমের চেয়েও নোংরা পুরুষের দাড়ি

এমন তথ্য পাওয়া গেছে সাম্প্রতিক এক গবেষণায়। পুরুষদের মাঝে দাড়ির এক বিশেষ কদর রয়েছে। এমনকি …