মোদির ৯টি লুকে নেট দুনিয়ায় হাসির পাত্র বিবেক

ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বায়োপিকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন বিবেক ওবেরয়। সিনেমার ফার্স্ট লুক পোস্টার প্রকাশ করে প্রথমেই সমালোচিত হয়েছিলেন বিবেক। তবুও করে যাচ্ছেন সিনেমার শুটিং। সম্প্রতি মোদির ৯টি বিশেষ লুকে সাজলেন বিবেক ওবেরয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেই প্রকাশ করেন ছবিগুলো। আর তাতেই ফের নতুন করে হাসির খোরাক হলেন অভিনেতা।

গতকাল সোমবার নরেন্দ্র মোদির বায়োপিকে বিবেকের ৯টি লুক প্রকাশিত করেন ট্রেড অ্যানালিস্ট তরণ আদর্শ। ছবি প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে উত্তর মিলল, মোদি রূপে কেমন দেখাবে বিবেককে। এরপর থেকেই সমালোচনা শুরু হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। নেটিজেনরা যে বিবেকের লুকে একেবারেই খুশি নয়, তা আর বলে দিতে হয় না। কোন দিক থেকে বিবেক ওবেরয়কে নরেন্দ্র মোদির মতো লাগছে, তা নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। ছবিগুলো সামনে আসতেই ট্রল হতে শুরু হলেন বিবেক ওবেরয়।

বিবেক ওবেরয় নরেন্দ্র মোদির ৯টি রূপে। ছবি: সংগৃহীত

সূত্রের খবর, শুটিং চলাকালীন প্রতিদিন রাত আড়াইটার সময় ঘুম থেকে ওঠেন বিবেক। তারপর মেকআপ করতে সময় লাগে সাত থেকে আট ঘণ্টা। নিয়ম মেনে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে শুরু শুটিং। অত্যধিক মেকআপ থাকার কারণে অভিনেতা শুধু তরল খাবার খেয়ে থাকেন সারাদিন। এ ছাড়াও জানা যায়, মেকআপ শেষ হওয়ার পর অভিনেতা ক্যামেরা অন হওয়ার আগেও চরিত্রের মধ্যে ঢুকে যান। বিস্ময়করভাবে, সম্পূর্ণ বদল ঘটে তার শারীরিক এবং মানসিক অবস্থার, যা ইউনিট সদস্যদের নজরে পড়ে সহজেই।

প্রযোজক সন্দীপ সিং বলেন, ‘আমি এই ভূমিকা পালন করতে একজন বহুমুখী অভিনেতা চেয়েছিলাম, যা বিবেকের দ্বারা বাস্তবায়িত করা সম্ভব হয়েছে। শুটিং শুরু হওয়ার আগেই তিনি আমাকে এক বছর সময় দিয়েছেন। কারণ এই চরিত্র ১৯৫৭ সাল থেকে ২০১৯ পর্যন্ত, তাই এই সফরটা বোঝা দরকার ছিল। বিবেক ১৫টি পরীক্ষা দিয়েছেন। এক বছরের প্রতিদিন সাত থেকে আট ঘণ্টা তাকে নিয়ে চলত প্রশিক্ষণ ও অনুশীলনের পালা। এই সবকিছুতেই বিবেকের উৎসাহ আমাদের আরও ভরসা জুগিয়েছে।’

এই বছরের শুরুর দিকে, এই চরিত্রে অভিনয় করার জন্য নিজেকে কতটা ভাগ্যবান মনে করেন?—এই প্রশ্ন করলে বিবেক বলেন, ‘১৬ বছর আগে যা ছিল, সেই একই উত্তেজনা অনুভব করছিলাম। এটি জীবনকালে ঘটা একাধিক ঘটনাকে ভিত্তি করে তৈরি গল্প। আমি প্রার্থনা করি, শুটিংয়ের যাত্রাকালে আমি যেন একজন ভালো অভিনেতা হয়ে উঠতে পারি। নরেন্দ্র ভাই বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা দৌড়ের নেতাদের মধ্যে একজন। তার ব্যক্তিত্ব এবং গুণাবলি পর্দায় ফুটিয়ে তোলা এক অবিশ্বাস্য চ্যালেঞ্জ। আমি এই অভিযান সম্পন্ন করার জন্য আপনাদের আশীর্বাদ চাই।’

উমাঙ্গ কুমারের পরিচালনায় নরেন্দ্র মোদির বায়োপিক প্রযোজনা করছেন সন্দীপ সিং, সুরেশ ওবেরয় এবং আনন্দ পণ্ডিত। লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখেই আগামী এপ্রিল মাসে মুক্তি পাবে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’। এতে বিবেক ওবেরয় ছাড়াও অভিনয় করেছেন দর্শন কুমার, বোমান ইরানি, প্রশান্ত নারায়ণন, জারিনা ওয়াহাব ও বরখা বিস্ত সেনগুপ্ত। বরখা সিনেমায় প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

Check Also

নায়ক আলমগীরের বউয়ের চরিত্রে পরীমনি

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা আলমগীর। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুইবার বিয়ে করেছেন। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের …