সম্পর্কে পদস্খলন যাদের বেশি তারাই বেশি সহনশীল, আর ক্ষমা করায় এগিয়ে ছেলেরাই!

এই গবেষণায় আরও উঠে আসে, নিজের ভুল স্বীকারে ছেলেরা যত সহজে বলে দিতে পারে মেয়েরা কিন্তু পারে না। জীবনে ভুল সবমানুষই করে। কিন্তু কজন সেই ভুল মেনে নিয়ে আবার নতুন করে শুরু করতে পারে?

হাইলাইটস

  • যে কোনও সম্পর্ক কীভাবে একে অপরের শ্রদ্ধা এবং বিশ্বাসেরর উপর দাঁড়িয়ে থাকে তার অন্য়তম উদাহরণ বিরাট ওবং অনুষ্কা।
  • তাঁরা তাঁদের সম্পর্ক দিয়ে সকলকে বুঝিয়ে দিয়েছেন
  • কীভাবে একে অপরের প্রতি তাঁরা বিশ্বাস রেখে চলেন।

এই সময় জীবনযাপন ডেস্ক: যে কোনও সম্পর্ক কীভাবে একে অপরের শ্রদ্ধা এবং বিশ্বাসেরর উপর দাঁড়িয়ে থাকে তার অন্য়তম উদাহরণ বিরাট ওবং অনুষ্কা। তাঁরা তাঁদের সম্পর্ক দিয়ে সকলকে বুঝিয়ে দিয়েছেন কীভাবে একে অপরের প্রতি তাঁরা বিশ্বাস রেখে চলেন। শুধু বিরাট অনুষ্কাই নন। যে কোনও সম্পর্কের মূল ভিত্তি হল বিশ্বাস। বিশ্বাসভঙ্গ করব, এরকম মানসিকতা না রাখাই শ্রেয়। আজ যদি আপনি প্রেমিক বা প্রেমিকার বিশ্বাসভঙ্গ করেন তাহলে যে কোনও দিন আপনি কিন্তু বাড়ির লোকজনদের সঙ্গেও এমনটা করতে পারেন। অন্তত গবেষণা তাই বলছে।

এই গবেষণায় আরও উঠে আসে, নিজের ভুল স্বীকারে ছেলেরা যত সহজে বলে দিতে পারে মেয়েরা কিন্তু পারে না। জীবনে ভুল সবমানুষই করে। কিন্তু কজন সেই ভুল মেনে নিয়ে আবার নতুন করে শুরু করতে পারে? এই মেনে নেওয়াটাই সবাই পারেন না। এ ব্যাপারে ছেলেরা অনেক খোলা মনের। মেয়েরা নয়। তারা কিন্তু নিজের অজান্তেই অনেক কথা বলে ফেলে। মেয়েরা যা পারে না। বরং কিছু লুকিয়ে রাখে। মিথ্যে বলে। অনেক সময় চেপে যেতে চায়। তাদের ধারণা, সত্যি বললে বুঝি সবাই ভুল বুঝবে। প্রিয়জন হয়তো ছেড়ে চলে যেতে পারে।

সুতরাং,ভাবনায় বদল আনুন মেয়েরা। সঙ্গীর সঙ্গে মন খুলে কথা বলুন। কিছু লুকিয়ে রাখবেন না। এতে আখেরে আপনারই ক্ষতি। আর হ্যাঁ, কদিনের জন্য় প্রেম করছি বা দুদিন পরই পাওনা মিটিয়ে ছেড়ে দেব এই ধরণের মানসিকতা রাখবেন না।

Check Also

আগুন ঠেকাতে দরকার

কিছুদিন ধরে অগ্নিকাণ্ডের পরিমাণ বেড়ে যাওয়াতে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি হচ্ছে। সে কারণে রাজধানীর বাণিজ্যিক …