Advertisements

ওভেনের খাবার ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়!

food-20190403124911 ওভেনের খাবার ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়!

কম সময়ে খাবার গরম করতে মাইক্রোওয়েভ ওভেনই ভরসা। আধুনিক এই যন্ত্রটি জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। নামমাত্র সময়ে ঠান্ডা খাবার গরম করার এর চেয়ে ভাল উপায় আর নেই। কিন্তু এই মাইক্রোওয়েভ ওভেনই যে মারাত্মক বিপদ ডেকে আনছে তা কি জানেন?

সম্প্রতি কয়েকটি গবেষণা থেকে জানা গেছে, মাইক্রোওয়েভ ওভেনে খাবার গরম করলে খাবারের খাদ্যগুণ নষ্ট হয়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে খাদ্যগুণ বা পুষ্টিগুণ ৬০ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত নষ্ট হয়ে যায়।

শুধু তাই নয়, মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করা খাবারে উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রায় ৯৭ শতাংশ নষ্ট হয়ে যায়। ওভেনে মাংস রান্না করলে বা গরম করলে তার মধ্যে ডি-নাইট্রোসোডিএনথানলেমিন নামের একটি ক্ষতিকর একটি যৌগ তৈরি হয়। যা সরাসরি কার্সিনোজেন বা ক্যান্সারের কারণ।

Advertisements

অর্থাৎ মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করা খাবার খেলে যকৃৎ, পাকস্থলিতে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি বহুগুণ বেড়ে যায়।

কানাডার ট্রেন্ট ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা করে দেখেছেন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন থেকে নির্গত রেডিয়েশনের কারণে আমাদের হৃদস্পন্দনের গতির অস্বাভাবিক তারতম্য ঘটে। তাঁদের মতে দুধ, ডিম, মাংস বা মাশরুমজাতীয় খাবার মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করে খাওয়া সবচেয়ে বিপজ্জনক! এই ক্ষতিকর দিকগুলোর কারণে ১৯৭৬ সালে রাশিয়ায় মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। যদিও পরে পশ্চিমের দেশগুলোর সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্যের প্রসারের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়।

মার্কিন স্বাস্থ্য বিষয়ক পত্রিকা ‘জার্নাল অব এগ্রিকালচারকাল ফুড অ্যান্ড কেমিস্ট্রি’-এর একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, মাইক্রোওয়েভ ওভেনে খাবার গরম করলে তার খাদ্যগুণ বা পুষ্টিগুণ অধিকাংশই নষ্ট হয়ে যায়। তাঁদের পরামর্শ, মাইক্রোওয়েভ ওভেন যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করা যায়, ততই মঙ্গল!

Advertisements

Check Also

কেমন দাম পড়বে করোনা ভ্যাকসিনের

প্রতিযোগিতায় থাকা করোনার ভ্যাকসিনের মধ্যে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি কার্যকারিতা পাওয়া গেছে যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না ও …