পা ঘেমে দুর্গন্ধ? জেনে নিন সমাধান

শীতকালটা আরামে কেটে গেলেও গরমের সময়টা অনেকের কাছেই ভীতিকর। এই ভয় ঘামের গন্ধ নিয়ে। অফিসে ফরমাল পোশাকের সঙ্গে সু পরতে হয় অনেককেই। পা আটকানো এই জুতা পরতে গিয়েই বাধে বিপত্তি। কারণ আটকা থাকার কারণে পা ঘেমে সারাক্ষণ চটচটে একটা অনুভূতি হয়। আর জুতা খুললে তো কথাই নেই। মোজা এবং পা থেকে বের হওয়া দুর্গন্ধে তিষ্ঠানো দায় হয়ে যায়।

ঘেমে যাওয়া পায়ে খুব দ্রুত ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে শুরু করে, যার ফলে পায়ে প্রচণ্ড দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। এ ক্ষেত্রে মোজায় পারফিউম বা পাউডার মেখেও লাভ হয় না। তবে কিছু ঘরোয়া উপায় আছে, যেগুলো কাজে লাগিয়ে এই অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব-

* প্রতিদিন বাড়িতে ফিরে সামান্য হালকা গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে তার মধ্যে অন্তত মিনিট পনেরো পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে পায়ে পায়ে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে পারে না। ফলে পায়ে দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা থেকেও রেহাই পাওয়া যাবে।

* জুতার ভেতরে ছিটিয়ে নিতে পারেন খানিকটা বেকিং সোডা। বেকিং সোডার অ্যাসিডিক উপাদান পা পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে এবং পায়ে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে বাধা সৃষ্টি করে। এতে করে পা অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া এবং পায়ে বিশ্রী দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা আর থাকে না।

*পা ঘামা রোধ করতে সুতির মোজা ব্যবহার করুন।

* যাদের এমন সমস্যা হয়, তাদের ঘন ঘন চা বা কফি না খাওয়াই ভালো

* মশলাদার (স্পাইসি) খাবারদাবার এড়িয়ে চলুন।

* সপ্তাহে অন্তত একবার জুতার ভেতরে সুগন্ধি পাউডার দিয়ে, ভালো করে কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

* পা দুর্গন্ধমুক্ত রাখতে চাইলে নিয়মিত পা পরিষ্কার রাখুন।

* ভালো করে পা মুছে, ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

* মাঝে মধ্যে জুতাগুলোকে রোদে দিন। একই মোজা না ধুয়ে পরপর দু’দিন ব্যবহার করবেন না।

Check Also

হাঁড়ির পোড়া দাগ তোলার সবচেয়ে সহজ উপায়

রান্না করতে গিয়ে একটু অসাবধানেই ভাত-তরকারি পুড়ে যেতে পারে। তাতে সাধের রান্না তো নষ্ট হয়ই, …