ইফতারে ছোলার সাতটি ভিন্ন স্বাদ

পবিত্র মাহে রমজানের স্পেশাল ইফতার আইটেম হচ্ছে ছোলা। ইফতারির সাথে ছোলা না থাকলে অনেকটা বেমানান লাগে। আর কিছু থাকুক আর না থাকুক ভুনা, কাঁচা, সেদ্ধ একটু ছোলা চাই-ই চাই। তাই আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম ছোলার চার পদ। আসুন তাহলে ছোলার সাতটি আইটেম তৈরির সহজ রেসিপিগুলো দেখে নেই।

১. ছোলার কাবাব

উপকরণ:

সেদ্ধ ছোলা ১ কাপ,

সেদ্ধ আলু মাঝারি ২টি,

রান্না করা চিকেন ২ টুকরো,

পেঁয়াজ কিমা বড় ২টি,

কাঁচামরিচ কিমা ৪-৫টি,

ধনেপাতা কিমা ১/৪ কাপ,

বেরেস্তা ২ টেবিল চামচ,

ভাজা শুকনো মরিচ ১ টেবিল চামচ,

লেমন যেস্ট ১ চা চামচ,

আদা, রসুন বাটা দেড় চা চামচ করে,

চাট মাসালা ১ টেবিল চামচ,

ভাজা জিরের গুঁড়া দেড় চা চামচ,

আস্ত জিরে ১ চা চামচ,

কর্ণফ্লাওয়ার প্রয়োজনমতো,

ডিম ১টি, লবণ স্বাদমতো,

তেল প্রয়োজনমতো

প্রণালি:

সেদ্ধ ছোলা আধা বাটা করে নিন। রান্না করা মুরগীর বুকের মাংস হাত দিয়ে মিহি করে চটকিয়ে নিন। এইবার তেল ছাড়া সব উপকরণ খুব ভালোভাবে মাখিয়ে কাবাবের আকারে গড়ে নিন। একটি বড় প্যানে মাঝারি আঁচে তেল গরম করে কাবাবগুলি গোল্ডেন করে শ্যালো ফ্রাই করে পেপার টাওয়েলের ওপর রাখুন। গরম গরম পরিবেশন করুন।

২. ছোলা ঘুগনি

উপকরণ

ছোলা ২ কাপ,

পেঁয়াজ কুচি ৪ টেবিল-চামচ,

আদা বাটা ১ চা-চামচ,

রসুন বাটা আধা চা-চামচ,

জিরা বাটা আধা চা-চামচ,

ধনে বাটা ১ চা-চামচ,

হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,

মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ,

কাঁচামরিচ ৫-৬টি,

লবণ পরিমাণমতো,

তেল ৩ টেবিল-চামচ,

তেজপাতা ২টি,

দারচিনি ২ টুকরা,

এলাচ ২টি।

প্রণালি

ছোলা ৫-৬ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে সেদ্ধ করতে হবে। তেল গরম করে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা কষিয়ে ছোলা দিয়ে ভুনতে হবে। পর্যায়ক্রমে বাকি উপকরণ দিয়ে কষিয়ে অল্প পানি দিয়ে রান্না করতে হবে। তেলের ওপর এলে চুলার আঁচ কমাতে হবে। ছোলা ঘুগনি শসা কুচি, টমেটো কুচি, পেঁয়াজ কুচি, চাট মসলা দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

৩. ছোলা বাটোরা

উপকরণ : ছোলের জন্য,

ছোলা বুট ১ কাপ (খোসা ছাড়ানো হলে ভালো হয়)

বেকিং সোডা আধা চা চামচ

তেল ৩ চা চামচ

সেদ্ধ আলু আধা কাপ (কিউব করে কাটা)

পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ

ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ

জিরা গুঁড়ো ১ চামচ

মরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ

গরম মসলা গুঁড়ো ১ চা চামচ

লেবুর রস ২ চা চামচ

গোল মরিচ গুঁড়ো আধা চা চামচ

টমেটো আধা কাপ (কিউব করে কাঁটা)

লবণ স্বাদ মতো

বাটোরার জন্য

ময়দা দেড় কাপ

সুজি ১/৩ কাপ (চালের গুঁড়ো হলেও চলবে)

তেল বা ঘি আধা টেবিল চামচ

বেকিং সোডা আধা চা চামচ

লবণ পরিমাণ মতো

চিনি আধা টেবিল চামচ

টকদই আধা কাপ

পানি প্রয়োজন মতো

তেল (ডুবো তেলে ভাজার জন্য)

ছোলে তৈরির পদ্ধতি :

ছোলা বুট প্রায় ৬ ঘণ্টা বেকিং সোডা এবং লবণ মিশিয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এরপর প্রেসার কুকারে দিয়ে ৩ টি হুইসেল বাজিয়ে নামিয়ে নিন। আলাদা করে রেখে দিন এবং আপনাআপনি ভেতরের ষ্টীম বের হতে দিন।

২ চা চামচ তেল একটি প্যানে গরম করে নিন। এতে দিন কেটে রাখা সেদ্ধ আলু এবং ২-৩ মিনিট তেলে নেড়েচেড়ে আলু ভেজে নিন। এরপর আলু তুলে রাখুন আলাদা করে।

একই প্যানে বাকি তেল দিয়ে গরম করে নিন এবং পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে ভাজুন ১-২ মিনিট। এরপর এতে দিন ধনে, জিরা, মরিচ গুঁড়ো। ভালো করে মিশিয়ে ২ টেবিল চামচ পানি দিয়ে নেড়ে ১ মিনিট মসলা কষে নিন।

এরপর প্রেসার কুকার থেকে ছোলা বের করে তা প্যানে দিয়ে দিন, একই সাথে দিন লবণ, গরম মসলা, লেবুর রস, গোল মরিচ গুঁড়ো এবং আধা কাপ পানি। ভালো করে ঘন ঘন নেড়ে ২ মিনিট রান্না করুন।

তারপর ভেজে রাখা আলু প্যানে দিয়ে ভালো করে নেড়ে রান্না করতে থাকুন মাঝারি আঁচে আরও ২-৩ মিনিট। টমেটো দিয়ে নেড়ে নিন। নিজের পছন্দ অনুযায়ী ঝোল হয়ে এলে নামিয়ে নিন।

বাটোরে তৈরির পদ্ধতি :

ময়দা, বেকিং সোডা ও লবণ মিশিয়ে চেলে নিন। এরপর এতে সুজি ও চিনি দিয়ে ভালো করে মেশান। একটু পর দই দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর অল্প করে কোলে পানি দিয়ে ডো তৈরি করতে থাকুন।

ডো রুটি তৈরির ডোয়ের মতো নরম হবে। ডো তৈরি হয়ে গেলে একটি ভেজা কাপড়ে তা পেঁচিয়ে ২ ঘণ্টা রেখে দিন।

২ ঘণ্টা পর ডো পছন্দ মতো আকারের বল তৈরি করে বড় করে কিংবা নিজের পছন্দের আকারে খুব বেশি মোটা নয় আবার খুব বেশি পাতলাও নয় এমন করে রুটি বানিয়ে নিন।

এরপর ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম করে নিন প্যানে। একটি একটি করে রুটি ছেড়ে দিন তেলে। পুরোপুরি ফুলে উঠলে বুঝবেন আপনার ভাটুরে পারফেক্ট হয়েছে।

দুপাশ ভেজে নামিয়ে নিন। ব্যস এবার ছোলের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

৪. ছোলা পনির

উপকরণ:

পনির- ৫০ গ্রাম

অঙ্কুরিত ছোলা- ১ টেবিল চামচ

টোম্যাটো- ১টি মাঝারি

পেঁয়াজ- ১টি লবণ,

গোলমরিচ- স্বাদ মতো

তেল- ২ চা চামচ

ধনেপাতা কুঁচি- সামান্য

পেঁয়াজ ছোটো চৌকো টুকরো করা।

প্রণালী: বাদাম তেল গরম করে পেঁয়াজ, পনির, লবণ, টোম্যাটো টুকরো, ছোলা দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

৫. ছোলার চাট

উপকরণ:

ছোলা ১ কাপ,

আখের গুঁড় ১০০ গ্রাম (গুঁড়া),

পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,

আদা কুচি ২ টেবিল চামচ,

তেঁতুলের মাড় ২ টেবিল চামচ,

পুদিনা পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,

ধনে পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,

টমেটো কুচি আধা কাপ,

কাঁচা মরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ,

লবণ পরিমাণ মতো,

জিরা ৪ চা চামচ,

শুকনা মরিচ ৮টি,

কালো জিরা, রাঁধুনি ২ চা চামচ,

ধনে ২ টেবিল চামচ,

মেথি আধা চা চামচ,

লবঙ্গ ৪টি,

দারুচিনি ৫ টুকরো,

এলাচ ৬টি,

তেজপাতা ২টি।

প্রণালী: ছোলা ৪-৫ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ডুবো পানিতে লবণ দিয়ে সেদ্ধ করতে হবে।

সব শুকনা মসলা আলাদা টেলে নিয়ে গুঁড়া করে অর্ধেক ধনে ও অর্ধেক শুকনা মরিচ গুঁড়া রেখে বাকি সব মসলা ও অন্য উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে রাখতে হবে।

ভিজিয়ে রাখা তেঁতুল ছেঁকে মাড় বের করে বিট লবণ, আখের গুঁড়, জিরা ও মরিচের গুঁড়া মাখিয়ে রাখতে হবে। পিরিচ বা ছোট বাটিতে ছোলার চাট দিয়ে ওপরে তেঁতুল গোলা ও পুদিনা-ধনেপাতা ছিটিয়ে পরিবেশন করা যাবে।

৬. শাহী ছোলা ভুনা

উপকরণ :

ছোলা ২ কাপ

আলু ১ টা কিউব করে কাটা

পেঁয়াজ কুচি ১/৪ কাপ

আদা বাটা ১ চা চামচ

রসুন বাটা আধা চা চামচ

জিরা বাটা আধা চা চামচ

ধনে বাটা ১ চা চামচ

হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ

মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ

কাঁচা মরিচ ৫-৬টি

লবণ পরিমাণ মতো

তেল ৩ টেবিল চামচ

তেজপাতা ২টি

দারুচিনি ২ টুকরা

এলাচ ২টি

আস্ত জিরা সামান্য

প্রণালী:

ছোলা ৫-৬ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে সেদ্ধ করতে হবে।

তেল গরম করে আস্ত জিরা দিয়ে পেঁয়াজ কুচি বাদামী করে ভাজতে হবে।

এরপর আলু এবং সব বাটা ও গুঁড়া মসলা কষিয়ে ছোলা দিয়ে ভুনতে হবে।

পর্যায়ক্রমে বাকি উপকরণ দিয়ে কষিয়ে অল্প পানি দিয়ে রান্না করতে হবে।

ছোলার ওপর তেল এলে চুলার আঁচ কমাতে হবে।

এরপর কাঁচা মরিচ দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে।

৭. ছোলার সালাদ

উপকরণ:

ছোলা ১ কাপ।

শসা কুচি ১/৩ কাপ।

লেটুস পাতা টুকরা করা ১/৪ কাপ।

পেঁয়াজ মিহি কুচি ২ টেবিল-চামচ।

আদার রস ১ চা-চামচ।

কাঁচা মরিচ কুচি ১ টেবিল-চামচ।

ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা-চামচ।

ধনে পাতা-কুচি ২ টেবিল-চামচ (ইচ্ছা)।

লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ।

গোল মরিচ-গুঁড়া আধা চা-চামচ।

লবণ স্বাদ মতো।

অলিভ ওয়েল ১ টেবিল-চামচ।

প্রণালী: ছোলা চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। ছোলা ফুলে উঠলে প্রেসার কুকারে সিদ্ধ হতে দিন। পাঁচ ছয়টি সিঁটি বাজলে নামিয়ে নিন।

চুলায় প্যানে অলিভ ওয়েল দিয়ে ছোলা ও গোলমরিচ হালকা ভাজুন। তারপর নামিয়ে বাকি সব উপকরণ ছোলার সঙ্গে মিশিয়ে নিন।

Check Also

ইফতারে সুস্বাদু চিকেন ললিপপ তৈরির রেসিপি

ইফতারে মুখরোচক কতকিছুই না থাকে। থাকে চিকেনের নানা আইটেমও। আজ চলুন জেনে নেয়া যাক চিকেন …