বিয়ের খবরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তাসকিনের সাবেক প্রেমিকা

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন তাসকিন রহমান। এরপর কাজ করেন ‘যদি একদিন’ ও ‘বয়ফ্রেন্ড’ ছবিতে।

এদিকে ১১ই এপ্রিল তাসকিন রহমান দ্বিতীয় বিয়ে করেন। কনে জান্নাতুল ফেরদৌসের বসবাস ইতালির মিলান শহরে। সম্প্রতি দেশে ফিরে এসেছেন। পারিবারিকভাবে বিয়ে করলেও তাসকিন-জান্নাতের বিয়ে হয় অনেকটা গোপনেই। তবে বিয়ের খবরটি প্রকাশ্যে আসে ২০ জুন।

তাসকিন বলেন, ‘আমার স্ত্রী জান্নাতের সঙ্গে প্রথম পরিচয় ৮ মাস আগে। একটি পার্টিতে ওর সঙ্গে দেখা হয়। তারপর টুকটাক কথাবার্তা, পরিচয়। গত দুই-তিন মাস ধরে আমাদের প্রেম হয়। পরে দুজনে সিদ্ধান্ত নিই বিয়ে করার।’

এদিকে তাসকিনের বিয়ের সংবাদ প্রকাশ করার পরপরই কাছে একটি অডিও রেকর্ড আসে। সেই অডিও রেকর্ডে এক তরুণীর সঙ্গে তাসকিন রহমানের কথোপকথন শোনা যায়।

তাদের কথোপকথন থেকে জানা যায়, ওই তরুণী তাসকিনের গার্লফ্রেন্ড ছিলেন। বিয়ের খবর শোনার পরপরই তাসকিনকে ফোন দেন তরুনীটি। তাসকিনের সঙ্গে মেয়েটির দেখা করার কথা থাকলেও তাসকিনের গড়িমসিতে দেখা হয় না তরুণীর। শেষে ফোনেই কথা সারেন তরুণীটি। ফোনে কথা বলার সময় বেশ কয়েকবার কান্নায় ভেঙে পড়তে শোনা যায় ওই তরুণীকে।

সেই তরুণী তাসকিনের কাছে জানতে চান, তার নতুন স্ত্রী জান্নাতকে তাসকিন বিয়ে করেছে কিনা। কিন্তু তাসকিনকে বিয়ের বিষয়টি আড়াল করতেই সচেষ্ট থাকেন। তরুণীর বারবার অনুরোধ সত্ত্বেও তাসকিন হ্যাঁ, অথবা না বলতে নারাজ।

একপর্যায়ে তরুণী তাসকিনকে বলেন, ‘তুমি যদি ওই মেয়েটির সঙ্গে শুয়েও থাক তবুও তোমাকে মাফ করে দেব। শুধু বলো যা শুনছি তা সত্য নয়। সবই গুঞ্জন।’

কিন্তু তরুণীর এমন কথাতেও তাসকিনকে দ্বিধান্বিত উত্তর দিতে দেখা যায়। মাঝে তুরণী কান্নায় ভেঙে পড়েন। মেয়েটি এটাও বলার চেষ্টা করেন যে, আমাদের তো ব্রেকআপ হয়নি। সবকিছুই তো ঠিকঠাক চলছিল।…তাসকিনের সঙ্গে ঈদের সময় রাত কাটানোর দাবিও তোলেন মেয়েটি।

অডিও কলের বিষয়ে জানতে তাসকিনকে একটি সংবাদমাধ্যম ফোন দিলে তিনি ফোন ধরেননি। অডিও কলের বিষয়টি জানিয়ে তাকে খুদে বার্তা পাঠালেও তাসকিন কোনো সাড়া দেননি।

এদিকে তাসকিনের সাবেক প্রেমিকার সঙ্গে যোগাযোগ করতে সক্ষম হয় দেশ রূপান্তর। নাম না প্রকাশ করার শর্তে তাসকিনের সাবেক প্রেমিকা একটি জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘তাসকিন আমার সঙ্গে এভাবে প্রতারণা করবে তা কোনো দিনই ভাবিনি। অথচ তাসকিন আমার সঙ্গে সম্পর্কই শুরু করেছিল বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে।’

নিজেকে মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে দাবি করে তাসকিনের সাবেক প্রেমিকা বলেন, ‘আমি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করছি। তাসকিনের বিয়ের প্রস্তাব পাওয়ার পর তাকে নিয়ে নিজের জীবন সাজানোর স্বপ্ন দেখি। কিন্তু আমার জীবনে এমনটা ঘটবে তা ভাবিনি। আমার মানসিক অবস্থাও এখন তেমন ভালো না।’

তরুণীটি জানান, ২০১৮ সালের অক্টোবর মাস থেকে তাসকিনের সঙ্গে তার সম্পর্ক শুরু হয়। ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হলেও পরে তা প্রেমে গড়ায়। এমনকি ১১জুন বিয়ে করার পরও তাসকিন ওই তরুণীর সঙ্গে আগের মতোই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখেন।

ভুক্তভোগী তরুণী বিস্তারিত তুলে ধরে বলেন, ‘তাসকিন বিয়ে করেছে ১১জুন কিন্তু ১৭/১৮ জুন পর্যন্তও সে আগের মতোই সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছে। তবে ১১ তারিখের পরে তার ভেতরে যে পরিবর্তন লক্ষ করি সেটা হলো, রাতের বেলায় ফোন দিত না। আর নিজের বাবার অসুস্থতার কথা বলে আমাকে এড়িয়ে যেত। এরপর ১৭/১৮ তারিখের দিকে ওর বর্তমান স্ত্রী জান্নাতের সঙ্গে ওর একটা ছবি পাই আমি। ওরই আরেক গার্লফ্রেন্ড আমাকে এটা পাঠায়। এ ছাড়া আমার অন্য একজন বন্ধুও তাদের ছবি আমাকে পাঠায়। ওদের ছবি দেখে তাসকিনের সঙ্গে আমি দেখা করতে চাই। কিন্তু ও আমার সঙ্গে দেখা করেনি। ফোনে বারবার অনুরোধ করলেও সে বিয়ের কথা স্বীকার করেনি। পরে আমি ওর বাসায় যাই এবং হাতে নাতে ধরে ফেলি। ওর বউয়ের সঙ্গেও সেসময় কথা বলি আমি।’

সূত্র: দেশ রূপান্তর

Check Also

দিশার ব্যাকফ্লিপে নেট দুনিয়ার চোখ কপালে!

শরীরচর্চা ভালোবাসেন দিশা পাটানি—এটা কারো অজানা নয়। আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি তুমুল জনপ্রিয়, এটাও জানা …