নিশ্চিত ব্রেক আপ থেকে কী করে বাঁচাবেন প্রেমকে

সম্পর্ক এমন এক জিনিস যা শেষ হয়েও যেন হয় না। বোঝাপড়া, ভালবাসা তলানিতে এসে ঠেকলেও মানুষ আঁকড়ে ধরতে যায় ক্ষয়ে যাওয়া সম্পর্কের খড়কুটো। তাই বিচ্ছেদ বেশির ভাগ সময়ই হয় যন্ত্রণাদায়ক।

সুতরাং এক নজরে দেখে নিন ব্রেক আপ বাঁচাতে কী কী করতে হবে—

প্রথমে এটা ভেবে দেখুন, সত্যিই কি এই সম্পর্কটা আপনার কাছে আগের জায়গাতেই আছে? নাকি, সত্যিই সেটা ভেঙে দেওয়ার সময় এসেছে! এ প্রশ্নের উত্তর আপনাকেই দিতে হবে। ভাল করে ভেবে তবেই সিদ্ধান্ত নিন। যদি সত্যিই আপনার সম্পর্ক আপনাকে দীর্ঘ সময় ধরে আর কোনও রকমের আনন্দ না দেয়, তার মানে সেই সম্পর্ক এবার সত্য়িই শেষ হওয়া দরকার।

ব্রেক আপ থেকে বাঁচার সব থেকে ভাল উপায়, তেমন কারও সঙ্গে গভীর সম্পর্কে না যাওয়া, যার সঙ্গে আদৌ আপনার কোনও সম্পর্ক তৈরি হওয়া সম্ভব নয়। যদি ভাল করে না ভেবে কোনও সম্পর্কে চটজলদি চলে যান, দেখবেন কিছু দিন যেতে না যেতেই সেই সম্পর্কের ভিতরকার অন্তঃসারশূন্যতা আপনার কাছে প্রকট হয়ে উঠবে।

আপনার প্রেম যদি দীর্ঘকালীন হয় তাহলে অবশ্যই খেয়াল রাখুন কখনও অজ্ঞাতসারে যাতে কোনও সমস্যা আপনাদের সম্পর্কে ফাটল তৈরি করতে না পারে। এ ব্যাপারে সচেতন থাকুন। শুরুতেই যদি সেই সমস্যার সমাধান হয়ে যায়, তবে অনায়াসেই তা থেকে বড় অঘটনের সম্ভাবনাকে এড়িয়ে যাওয়া যায়।

আপনার সঙ্গীকে সম্মান করুন। তিনি আপনাকে সম্মান করছেন কি না সেটাও খেয়াল রাখুন। এবং অবশ্যই দু’জনে দু’জনকে প্রয়োজনীয় স্পেস দিন।

যদি তা সত্ত্বেও দেখেন জল ক্রমশ নাকে কাছে পৌঁচে গিয়েছে, তাহলেও ঘাবড়াবেন না। একটা শেষ ও মরিয়া চেষ্টা করতেই পারেন। সঙ্গীর সঙ্গে লম্বা কথাবার্তা চালান। যদি সেও সমান মরিয়া হয় সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখার ব্যাপারে, তাহলে সমাধানের সূত্র বেরিয়ে আসবেই।

প্রেমে পড়ার সময় থেকেই একটা ব্যাপারে খেয়াল রাখুন। যে কোনও সম্পর্ক, তা যতই গুরুত্বপূর্ণ হোক না কেন, মাথায় রাখুন তা ভেঙে যেতেই পারে। আপনি নিশ্চয়ই চেষ্টা করবেন তা টিকিয়ে রাখতে। কিন্তু যদি তা না টেকে, তাহলে ভেবে রাখুন সত্যিই সম্পর্ক ভেঙে গেলে নিজেকে কী ভাবে সামলাবেন। এবং সেটা আগেভাগেই ভেবে রাখতে হবে। তাহলে ব্রেক আপ হয়ে গেলেও মাথায় আকাশ ভেঙে পড়বে না। কষ্ট হবে। কিন্তু তা থেকে বেরিয়ে আসতে হবেই।

Check Also

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রেমিকের সঙ্গে যে কাজগুলো করবেন না

বর্তমান সময়ে আমাদের সবচেয়ে বড় সঙ্গী হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। একইসঙ্গে অনেক মানুষের সঙ্গে সংযুক্ত …