ষষ্ঠীর সাজে শরতের আবহ

ফিরে এল শরৎ। এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে দুর্গাপূজার দিন গোনা। চারদিন পরই আসবে মহা ষষ্ঠী। মূলত ষষ্ঠী থেকেই পূজা-অর্চ্চনার মধ্য দিয়ে শুরু হয়ে যায় দূর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা। এ দিন অনেকেই মন্ডপে মন্ডপে ঘুরে বেড়ান। কিন্তু কী পরে বের হবেন তা ঠিক করেছেন? ফ্যাশন ডিজাইনারদের মতে, এদিন সাদামাটা, ছিমছাম সাজাই ভালো। সাদা রঙের শাড়িই এদিন মানানসই।

ষষ্ঠীর সকালে সুতি, তাঁত, জামদানি কিংবা হালকা রঙের মানানসই শাড়ি পড়তে পারেন। শাড়িতে থাকতে পারে ইচ্ছে মতো কুচি; এক প্যাচেও পরতে পারেন। সাজের ক্ষেত্রে ছিমছাম সাজই বেশি মানানসই এ দিনে। পরিষ্কার মুখে প্রথমে প্রাইমার লাগিয়ে নিন। এবার আপনার স্ক্রিন টোনের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন। হালকা শ্যাডো, কাজল, আইলাইনার অথবা শুধু মাশকারা দিয়েও চোখের সাজ শেষ করতে পারেন।

ফ্যাশন হাউস রঙের ডিজাইনার বিপ্লব সাহা জানান, এ সময় সাধারণত সবাই তাঁতের শাড়ি পরতেই বেশি পছন্দ করেন। টাঙ্গাইলের শাড়ি, হাফ সিল্ক—এ ধরনের শাড়ি এ সময়ের জন্য উপযোগী। নীল আকাশে সাদা মেঘের ভেলা ভাসিয়ে আর কাশবনটা ফুলে ফুলে সাদা করে। শরতের এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে শাড়ি নিতে পারেন। এখন বুনন-বৈচিত্র্যের মধ্যে একটু সাবেকি নকশাই প্রাধান্য পায়।

ছোটদের জন্য হালকা এবং ন্যাচারাল সাজই মানানসই। তরুণীরা চাইলে কুর্তি-কামিজ, প্লাজো অথবা জিন্স পরতে পারেন। সাদা, হালকা হলুদ, লেবু-সবুজ, হালকা বেগুনি, মিষ্টি রং বা আকাশি—এ ধরনের রং-ই বেশি প্রাধান্য দিতে পারেন। আর মেকআপ? রফাউন্ডেশন-ফেসপাউডার, হালকা লিপিস্টিক আর চোখে কাজল দিয়েই সাজ শেষ করুন।

Check Also

হাতে সময় কম? পাঁচ মিনিটেই সাজবেন যেভাবে

ঘুম ভাঙার পর গোসল সেরে, সকালের খাবার খেয়ে তৈরি হতেই তাড়াহুড়ো লেগে যায়। অতটুকু সময়ের …