অপমানে কেঁদে ফেললেন মৌসুমী

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে অপমানিত হয়েছেন জনপ্রিয় নায়িকা ও শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদের স্বতন্ত্র প্রার্থী মৌসুমী।

মিশা-জায়েদ প্যানেলের সমর্থক বলে পরিচিত ড্যানি রাজ তাকে অপমান করেন। তার অপমানে কেঁদে ফেলেন মৌসুমি।

সোমবার সন্ধ্যার দিকে এফডিসিতে এ ঘটনা ঘটে।

মৌসুমী অভিযোগ করে বলেন, আমি নির্বাচনী প্রচারণার জন্য এফডিসিতে গিয়েছিলাম। সেখানে আমার এক বড় আপা এবং কয়েকজন ভক্ত ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে এফডিসিতে আসেন। তারা শিল্পী সমিতির সামনে আমার সঙ্গে সেলফি তুলে চলে যাবেন এমন সময়ে ড্যানি রাজ ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ শুরু করেন।

আমিসহ সবার সঙ্গে তিনি বাজে ব্যবহার করেন। একটা হট্টগোল তৈরি করেন। ড্যানি আমাকে চিৎকার করে প্রশ্ন করেন আমি কে? আসলে তারা চাইছে একটা ঝামেলা বাধাতে। যেন নির্বাচন বানচাল হয়ে যায়। আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ড্যানি রাজ নামে এক শিল্পী মৌসুমীসহ তার ভক্তদের সঙ্গে চরম খারাপ ব্যবহার করেছেন। চিৎকার করে মৌসুমীকে বলছিলেন, আপনি কে? বেশ কয়েকবার এই কথাটি উচ্চারণ করেন ড্যানি রাজ। এ সময় মৌসুমী কেঁদে ফেলেন।

বিষয়টি নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চন তাৎক্ষণিকভাবে প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগরকে নিয়ে আলোচনায় বসেন। সেখানে ড্যানি রাজ তার কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান।

এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশন ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ড্যানি রাজ একজন ভোটার। তার কাজ ২৫ অক্টোবর এসে একটা ভোট দেয়া। মৌসুমীর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে প্রার্থীরা তা করতে পারে। তবে যাই হোক, ড্যানি রাজ সবার সামনে তিনি ক্ষমা চেয়েছেন।

এ ব্যাপারে ড্যানি রাজ তার ভুল স্বীকার করে বলেন, আমার ভুল হয়েছে। আমি আর এ ধরনের আচরণ করব না।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে শিল্পী সমিতির নির্বাচন। নির্বাচনে মিশা সওদাগর-জায়েদ খান একটি প্যানেল দিয়েছে। অন্যদিকে মৌসুমী স্বতন্ত্রভাবে সভাপতি পদে লড়ছেন।

Check Also

মালাইকাকে ছেড়ে রাকুলের কাছে অর্জুন কাপুর!

তবে কি শেষ পর্যন্ত ‘ছাইয়া ছাইয়া গার্ল’ মালাইকা অরোরার মোহবন্ধন থেকে মুক্তি মিলল ‘গুন্ডে’ তারকা …