কুমারিত্ব প্রমাণে বাজারে এল কৃত্রিম রক্তের পিল


প্রথম শারীরিক মিলনের রাতে মেয়েটিকে রক্তাক্ত হতেই হবে— এ সংস্কার শুধুই তৃতীয় বিশ্বের নয়, বরং অনেক উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশই এই ‘ট্যাবু’ বহন করে এসেছে যুগের পর যুগ। কখনো সরাসরি, কখনো ভিন্নপথে। বিভিন্ন সময়ে নানা ধর্মীয় ভাবাবেগ ও কুসংস্কারকে শিখণ্ডী করে এমন প্রথাকে ‘নিয়ম’ বলে দেগে দিয়েছে সমাজের একাংশ।

এমন নিয়মকে পুঁজি করে ব্যবসা করতে বাজারে এসেছে ‘আই ভার্জিন পিল’। অনলাইনে এক ক্লিকেই মিলছে অ্যামাজনের সাইটে। সঙ্গে রয়েছে অনেকগুলো ‘আশ্বাসবাণী’। কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। প্রয়োজন পড়ে না কোনো কাটাছেঁড়ার। অজ্ঞান করারও প্রয়োজন নেই। স্রেফ এক পিলেই শরীরে জমে যাবে পরিমাণ মতো থকথকে ‘নকল’ রক্ত।

Check Also

মা হওয়া অসম্ভব, অতঃপর যা করলেন নীতা আম্বানি

ছোট থেকেই শিশুদের ভালো লাগতো তার। স্বপ্ন দেখতেন মা হওয়ার। সন্তানদের কীভাবে লালন-পালন করতে চান, …