শিশুদের খাওয়ার প্রতি আগ্রহী করে তুলতে ৬টি টিপস

বেশিরভাগ সময় দেখা যায়, শিশুদের খাবার নিয়ে খুব ঝামেলা পোহাতে হয় অভিভাবকদের। বড়দের মতো তাদেরও খাওয়ার রুচি থাকে না বা খেতে চায় না।

শিশুদের খাওয়ার প্রতি আগ্রহী করে তুলতে যা করবেন

শিশু বসতে শেখার পরপরই তাকে নিজে নিজে খাবার খেতে অভ্যস্ত করে তুলুন। খাবারের রঙ, ধরন ও গন্ধ সম্পর্কে ধারণা দিন। খাবার ধরা ও খাওয়ার মাধ্যমে শিশু খাবারের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবে।

শিশুকে কখনও জোর করে কিংবা বকাঝকা অথবা মারধর করে খাওয়ানো যাবে না। এতে বরং সে খাওয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে। উৎসাহ দিয়ে ও প্রশংসা করে খাওয়াতে হবে।

শিশুকে সকাল, দুপুর ও রাতের মূল খাবারের মধ্যে দুবার হালকা নাশতা দেওয়া প্রয়োজন। তবে যখন-তখন খাবার খেতে জোর করবেন না। মনে রাখবেন, নাশতার সময় যেন মূল খাবারের কাছাকাছি সময়ে দেওয়া না হয়।

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, অভিভাবকরা একই পরিমাণ নাশতা ও মূল খাবার শিশুকে দেন, যা তার ক্ষুধামান্দ্য তৈরি করে। তাই নাশতার পরিমাণ কম ও মূল খাবার বেশি হওয়া জরুরি।
শিশুর পছন্দকে গুরুত্ব দিতে হবে। পাশাপাশি খাবারে বৈচিত্র্য আনতে হবে। একই খাবার বারবার খাওয়ানো যাবে না। শিশুকে বলা যেতে পারে, ‘তুমি আপেল, না কি আম কোনটা খেতে চাও?’ এর উত্তরে শিশু যেটি খেতে চাইবে, সেটাই তাকে দিতে হবে।

শিশুকে চকোলেট, চিপস, জুস ও ফাস্টফুড-জাতীয় খাবার যত কম দেওয়া যায়, ততই ভালো। এসব খাবারের কারণে শিশুর ক্ষুধা কমে যায়। সহজে আর ক্ষুধা পায় না।

শিশুকে একা রেখে খাওয়াবেন না। পরিবারের সবাই এক সঙ্গে বসে খাবার খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। এতে শিশুটিও খাবারের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবে।

Check Also

ডায়াপারে র‍্যাশ দেখা দিচ্ছে শিশুর?

শিশুদের ত্বক খুবই কোমল ও স্পর্শকাতর হয়ে থাকে। ফলে শিশুর সার্বিক যত্নে ত্বকের দিকেও খেয়াল …