১১ বছর ধরে স্বামীর মরদেহ ডিপ ফ্রিজে লুকিয়ে রাখেন স্ত্রী!

যুক্তরাষ্ট্রের ইউটা অঙ্গরাজ্যে ৭৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করতে গিয়ে বাড়ির ডিপ ফ্রিজ থেকে ওই বৃদ্ধার স্বামীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে ওই এলাকায় বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানায়, দুই সপ্তাহ ধরে কোনো দেখাসাক্ষাৎ না পাওয়ায় গত মঙ্গলবার নিয়মিত পরিদর্শনের অংশ হিসেবে টুয়েলো শহরে ওই বৃদ্ধা জিন স্যুরন-ম্যাথার্সের অ্যাপার্টমেন্টে তাঁকে দেখতে যান সমাজকর্মীরা।

কিন্তু তাঁর অ্যাপার্টমেন্টে গিয়ে বিছানার ওপর জিন স্যুরন-ম্যাথার্সের মরদেহ পাওয়া যায়। তাঁর স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তবে এরপর যা ঘটেছে তা চমকে দিয়েছে সমাজ কর্মীদের। অক্ষত অবস্থায় বাড়ির ডিপ ফ্রিজে খুঁজে পাওয়া যায় ওই বৃদ্ধার ৬৯ বছর বয়সী স্বামী পল এডোয়ার্ড ম্যাথার্সের মরদেহ।

ঘটনার রহস্য উদঘাটনে বিস্তারিত তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গোয়েন্দারা ধারণা করছে, সর্বনিম্ন দেড় বছর বা সর্ব্বোচ্চ ১১ বছর সময়কালের মধ্যে পল এডোয়ার্ড ম্যাথার্সের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এডোয়ার্ডের মৃত্যুর সঙ্গে স্ত্রী জিন স্যুরন-ম্যাথার্স জড়িত কি না, তা স্পষ্ট নয়। কারণ প্রতিবেশীদের ভাষ্যমতে, ওই বৃদ্ধা হৃদয়বান ছিলেন।

Check Also

১৪ পুরুষের সঙ্গে স্ত্রীর শারীরিক সম্পর্ক, ক্ষতিপূরণ চাইলেন স্বামী

পরকীয়ায় মেতে আছেন স্ত্রী। হঠাৎ এমন সন্দেহ হয় স্বামীর। এর জেরেই গোয়েন্দা দিয়ে খোঁজ-খবর নিলেন। …