মেকআপ কালো হয়ে যায়? জেনে নিন সমাধান

খুব সুন্দর করে সেজেছেন। গিয়েছেন কোনো পার্টি বা দাওয়াতে। প্রথমে দেখতে ভালোলাগলেও কয়েক ঘণ্টা যেতেই মেকআপ কেমন কালচে হতে শুরু করেছে! যা কিনা আপনাকে নিমিষেই ফেলেছে অস্বস্তিকর অবস্থায়। ভাবছেন, মুখের রঙের সঙ্গে মিলিয়েই তো ফাউন্ডেশন কিনলাম, তবু কেন এমনটা হলো!

রং মিলিয়ে কেনা সত্ত্বেও ফাউন্ডেশন ত্বকের সঙ্গে সম্পূর্ণ মেশে না, ছোপছোপ হয়ে যায়, কখনো আবার ফাউন্ডেশন লাগানোর পর মুখ কালচে হয়ে যায়। ফাউন্ডেশন ঠিকমতো কাজ না করার পিছনে অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে। ফাউন্ডেশন কেনার আগে তাই কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। জেনে নিন-

অক্সিডাইজেশন এফেক্ট
একটা আপেল কেটে কিছুক্ষণ খোলা বাতাসে ফেলে রাখলে দেখবেন সাদা অংশটা কেমন কালচে হয়ে গেছে। এটা আসলে অক্সিডাইজেশনের ফল। বাতাসের সঙ্গে বিক্রিয়ার ফলে আপেলের রং যেমন পালটে যায়, একইভাবে ফাউন্ডেশনের রংও বদলে যেতে পারে। এক্ষেত্রে আপনার মুখ থেকে নিঃসৃত প্রাকৃতিক তেলের সঙ্গে ফাউন্ডেশন মিশে গিয়ে ত্বকের পিএইচ-এর সঙ্গে বিক্রিয়া করে ফাউন্ডেশনের শেড বদলে যায় আর আপনার মুখ কালো দেখায়।

এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ফাউন্ডেশন দোকানেই সামান্য লাগিয়ে নিন। কয়েক ঘণ্টা সময় কাটিয়ে এবার সেটির অবস্থা পরখ করুন। যদি ঠিকঠাক বসে গিয়ে থাকে, তা হলে বুঝবেন সঠিক জিনিসটি বেছেছেন। ত্বকে বসার জন্য ফাউন্ডেশনটিকে কয়েক ঘণ্টা সময় দিতেই হবে। তারপরে দেখে নিন ঠিকঠাক কাজ করল কি না।

ত্বকে সাদা ছোপ ছোপ হয়ে থাকলে
ফাউন্ডেশন লাগানোর আগে যদি ত্বককে প্রস্তুত না করেন, তা হলে কিন্তু ত্বকে তা ছোপছোপ দেখাবেই। ত্বকের মৃত কোষ আর শুষ্ক ত্বক কিন্তু আপনার ফাউন্ডেশনের পক্ষে ভালো বেস নয়, কারণ ফাউন্ডেশন ত্বকের ওই শুষ্ক অংশে সেঁটে থাকবে আর আপনার ত্বকের খামতিগুলি এতে আরও প্রকট হয়ে উঠবে।

সপ্তাহে একদিন বা দু-দিন এক্সফোলিয়েট করে ত্বকের মৃত কোষগুলি তুলে ফেলুন। ফাউন্ডেশন লাগানোর আগে ত্বকে প্রাইমার লাগিয়ে নিলে ভালো হয়। কারণ প্রাইমার ত্বকের উপরে সমানভাবে যে বেস তৈরি করে দেবে, তার উপরে ফাউন্ডেশন ধরবে অনেক সহজে আর স্থায়ীও হবে অনেকক্ষণ।

অনলাইনে ফাউন্ডেশন কেনার ক্ষেত্রে
ছবিতে যতই নিখুঁত দেখাক না কেন, লাগানোর পরে অনেক সময়েই তা একেবারে অন্যরকম দেখায়। আপনি ছবি দেখে অনুমানটুকুই শুধু করতে পারেন, সরাসরি ব্যবহার করে না দেখলে সঠিক সিদ্ধান্তে কিছুতেই পৌঁছতে পারবেন না।

যদি অনলাইনে কিনতেই হয়, আপনি নমুনা পাঠানোর জন্য অনুরোধ করতে পারেন। সেটি বাড়িতে এলে কয়েকদিন ব্যবহার করে দেখুন ঠিকঠাক কাজ করছে কি না। আন্ডারটোনটাও মিলিয়ে নিতে ভুলবেন না।

Check Also

যে কারণে শ্বেতী বা ধবল রোগ হয়

শ্বেতী বা ধবল রোগ নিয়ে আমাদের সমাজে নানা ধরনের কুসংস্কার প্রচলিত আছে, যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। …