শিশুর মুখে মধু দিলেই বিপদ!

জন্মের পরেই বাচ্চার মুখে মধু দেয়া হয়। কখনো কি ভেবে দেখেছেন শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য তখনই মধু উপকারি কি-না। শুধু রীতি মানতেই অনেকে এই কাজটি করে থাকে।

তবে জানেন কি, সেই রীতি আপনার ছোট্ট সোনাকে গুরুতর অসুস্থ করে ফেলতে পারে। জন্মের পর প্রথম এক বছর পর্যন্ত শিশুকে মধু দিতে কঠোরভাবে নিষেধ করছেন চিকিৎসকরা।

জন্মের পর প্রথম এক বছর সন্তানকে দুধ ছাড়া অন্যান্য খবার খাওয়ালেও মধু দেয়া যাবে না। মধুতে যথেষ্ট পরিমাণে খাদ্যগুণ থাকলেও তা শিশুর বয়স ১২ মাস না হওয়া পর্যন্ত তাকে দেয়া যাবে না। কারণ মধুর মধ্যে থাকে ক্লসট্রিডিয়াম বটুলিনিয়াম নামে এক ধরণের ব্যাকটেরিয়া। ছোট্ট শিশুদের ক্ষেত্রে এটি খাদ্য বিষক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে। যার থেকে শিশুর গুরুতর অসুস্থতা এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

মধু খাওয়ার ফলে শিশুদের মধ্যে তখনই অসুস্থতার লক্ষণ অনেক সময় দেখা যায় না। মধুর ক্ষতিকর প্রভাব ৮ থেকে ৩৬ ঘণ্টা পরে দেখা যেতে পারে। এছাড়া শিশুর বয়স এক বছর হওয়ার আগেই তাকে মধু খাওয়ালে শিশুর দাঁত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। মধু খাওয়ার পর শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ক্লান্তি, ঝিমুনি ভাব দেখা দিলে তখনই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান।

Check Also

শিশুর কোমল গাল ফাটছে? যত্ন নিন এভাবে…

শীত এলেই আপনার আদরের সোনামনিকে নিয়ে চিন্তা বেড়েই যায়। আবহাওয়া শুষ্ক হওয়ায় শিশুদের ত্বক রুক্ষ …