শীতে গরম পানি দিয়ে গোসলে বাড়ছে মৃত্যুর ঝুঁকি!

হঠাৎ শীতের তীব্রতা বেড়ে গেছে। শীতের কনকনে হাওয়ায় কাবু প্রায় অনেকেই। ঠাণ্ডা থেকে বাঁচতে এ সময় অনেকেই গোসলের দ্বারস্থ হতে চান না। তারপরও সুস্থতা ও পরিচ্ছন্নতার জন্য গোসল করা জরুরি হয়ে পড়ে।

তাই শীতে গোসলের জন্য সবাই বেছে নেন উষ্ণ গরম পানি। বেশিরভাগ মানুষি মনে করেন, গরম পানি শরীরের জন্য বেশ উপকারী। জানেন কি, এতে উপকার নয়, বরং ক্ষতিই হয় বেশি। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এর ক্ষতিকর দিকগুলো-

> প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় গরম পানি দিয়ে আরামের গোসল হঠাৎ করে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়। শুধু তাই নয়, এতে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভবনাও বাড়ে। তাই যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে তারা গোসলে গরম পানি এড়িয়ে চলবেন।

> পুরুষের জন্য গরম পানিতে দীর্ঘ সময় গোসল করা ক্ষতিকর। কারণ এতে সন্তান হওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিতে পারে। এমন অভ্যাসের কারণে ফার্টিলিটি কমে যায়। তাই পুরুষের উচিত ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করা। এতে স্পার্ম কাউন্ট বৃদ্ধি পায়।

> শীতের সময়ে ত্বক আর্দ্র রাখা সবচেয়ে জরুরি। কিন্তু গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ত্বকের আর্দ্রতা দ্রুত হারায়। ত্বক রুক্ষ হয়ে ওঠে। তাই ত্বকের সুস্থতা ধরে রাখতে গরম পানিতে গোসল করা বন্ধ করুন।

> গরম পানিতে গোসলের সময় আমাদের রক্তচাপে পরিবর্তন হতে শুরু করে। ফলে এই সময় সারা শরীরে রক্তের সরবরাহ ঠিক রাখার পাশাপাশি রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে হার্টকে বেশি বেশি করে কাজ করতে হয়। ফলে যাদের হার্টের রোগ রয়েছে তাদের জন্য ঝুঁকি বাড়ে।

> গরম পানি শরীরে পরা মাত্র রক্তচাপে হেরফের হতে শুরু করে। ফলে শরীরের কর্মক্ষমতা কমে গিয়ে মাথা ঘোরা, গা গোলানোর মতো লক্ষণ দেখা দিতে থাকে।

তাই শীতের ভয়ে খুব বেশি গরম পানি দিয়ে গোসল করবেন না। আর গরম পানি ব্যবহার করলেও তা যেন অনেক হালকা হয়। ভয়কে জয় করে ঠাণ্ডা পানিতে গোসলের অভ্যাস করতে পারেন। তাতে আপনি যেমন দিনভর সতেজ থাকবেন, তেমনই মিলবে নানা উপকার।

Check Also

ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বেশি তরুণীদের

চল্লিশ বছরের মধ্যে বয়সী কোটি কোটি নারীদের ব্রেস্ট ক্যান্সার বা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি …