গাড়িতে বসা শিশুর প্রতি রিকশাওয়ালার বিরল ভালোবাসা

আজব শহর ঢাকার জ্যামে বসেও বিচিত্রতার দেখা মেলে। এমনি একটি বিরল ভালোবাসার বিচিত্র এক সত্য গল্প নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিলেন সাবিকুন নাহার নামের এক নারী। পোস্টে তিনি চারটি ছবি দেন। ছবিতে দেখা যায়, গাড়িতে বসে থাকা একটি ছোট্ট শিশুর সঙ্গে একজন রিকশাওয়ালা হাসিমুখে খেলছেন। কিন্তু শেষের চিত্রটি জন্ম দেয় এক বিরল ভালোবাসা।

তার ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল-

অমূল্য ১০ টাকা:
আজকে জ্যাম এ বসে থাকতে থাকতে নাহয়ান (আমার একমাত্র ১১ মাসের ছেলে) বিরক্ত হয়েগেছিল। পরে আমি না পেরে জানালা অর্ধেক খুলে দেই। সেও খুব খুশি একটু করে মাথা আগায় আর মজা করে। নাহয়ান অপরিচিত হলেও প্রায় সবার দিকেই তাকিয়ে এমন হাসি দেই যে অন্যপক্ষ ওর সাথে না হেসে কথা বলে পারবেনা (মাশাআল্লাহ) তো সে পাশের রিকশাওয়ালা মামার সাথে হাসাহাসি, খেলা শুরু করলো। মামাও যখন বুজছে আমি মাইন্ড করছিনা তখন স্বত্বস্ফুরত ভাবে খুব আদর করে কথা বলছিল এবং খেলছিল। আঙ্গুল দিয়ে পয়েন্ট করে, হাই ফাইভ, হ্যান্ড সেক করে। অনেকক্ষন যাবৎ তাদের ভাব আদান প্রদান চলে। সিগন্যাল যখন ছাড়বে মামা তার হাতে নতুন ১০ টাকার একটা নোট দেই & বলে মজা খাবে এইটা দিয়ে। আমরা সবাই অপ্রস্তুত হয়েগেছি কিন্তু তার চোখ মুখের আনন্দ দেখে আর না করতে পারিনি। শুধু দোয়া চেয়েছি তার কাছে আর মন থেকে দোয়া করি তার পরিবার যেন এক বেলাও অণাহারে না থাকে কোন দিন। অনেক বিত্তবান এর মনও এত বড় দেখা যায়না প্রায় সময় কিন্তু উনি অল্প সময়ে যে ভালবাসা দেখিয়েছেন তা যথার্থতই প্রসঙ্গশনীয়। সেই টাকা টা যত্ন করে তুলে রাখলাম।

Check Also

মাস্ক পরলেই ঝাপসা হচ্ছে চশমার গ্লাস, যা করবেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক ব্যবহার করা আমাদের প্রতিদিনের রুটিন। তবে মাস্ক পরলে উপকারের সঙ্গে সঙ্গে …