নো বেইকড চকলেট বিস্কুট কেক

ওভেন ছাড়াই কেক তৈরি করতে চাইলে অনুসরণ করতে পারেন রন্ধনশিল্পী তাসনুভা মাহমুদ নওরিনের এই কেক রেসিপি।

উপকরণ: ডাইজেস্টিক বা যে কোনো বিস্কুট ২৮০ গ্রাম বা ৩ প্যাকেট। কাঠবাদাম আধা কাপ। চিনি আধা কাপ এবং ৩ টেবিল-চামচ বা নিজের স্বাদ মতো। কোকো পাউডার ১/৩ কাপ। পানি দেড় কাপ। বাটার ১/৩ কাপ। ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা-চামচ।

চকলেট গানাসের জন্য: চকলেট চিপস বা চকলেট বার ১২০ গ্রাম (আধা কাপ)। হুইপড ক্রিম বা তরল ঘন দুধ ১/৩ কাপ।

পদ্ধতি: বিস্কুটগুলো আগে হাতে ভেঙে নিতে হবে। বাদাম তাওয়ায় হালকা ভেজে ব্লেন্ডারে আধ ভাঙা করে বিস্কুটের সঙ্গে মিশিয়ে নিন।

প্যানে কোকো পাউডার, চিনি, বাটার ও পানি ভালো মতো মিশিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর বলক আসলে নামিয়ে হালকা ঠাণ্ডা করে ভ্যানিলা এসেন্স মিশিয়ে বিস্কুটের সঙ্গে ভালোমতো মিশিয়ে নিন।

এবার যে প্যানে কেক বসাবেন সেটা তেল বা বাটার দিয়ে ব্রাশ করে নিন। এমন প্যান নিন যেন বিস্কুট কেক খুলে বের করে নেওয়া যাবে। কেকের প্যান হলে সবচেয়ে ভালো। আর না থাকলে টিফিন বক্সে কাগজ উঁচু করে দিয়ে তারপর দিন যেন কাগজ ধরে তুলে বের করে নেওয়া যায়।

বিস্কুট-কোকোর মিশ্রণ প্যানে ঢেলে সমান ভাবে চেপে চেপে বসিয়ে দিন। ফ্রিজে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট রাখুন। চুলায় বা মাইক্রোওভেনে চকলেট গলিয়ে তাতে হুইপড ক্রিম বা দুধ দিয়ে ভালো মতো মিশিয়ে ঠাণ্ডা কেকের ওপর ঢেলে এবার ফ্রিজে এক ঘণ্টা বা সারারাত রেখে দিন।

পরে আস্তে করে কেক প্যান খুলে বিস্কুট কেক বের করে নিন। চাইলে ওপরে বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

চকলেট বার বা চিপস না থাকলে আধা কাপ নসিলা ও তরল দুধ মিশিয়ে ঢেলে দিলেও হবে। যদি নসিলার সঙ্গে হুপইড ক্রিম মেশান তবে চিনির পরিমাণটা বুঝে দিতে হবে। নয়ত বেশি মিষ্টি হয়ে যেতে পারে।

Check Also

সুস্বাদু চিকেন বান তৈরির রেসিপি

ঝাল ঝাল চিকেন বান খেতে নিশ্চয়ই অনেক পছন্দ করেন? কিন্তু বাইরে থেকে কিনে খাওয়া কি …