বেল্ট দিয়ে মেদ কমাতে চান? ঝুঁকিগুলো জেনে নিন

আজকাল আমরা সব কিছুই চাই খুব সহজে। বছরের পর বছর অনিয়ম করে, বেশি খেয়ে পেটে যে মেদ জমেছে, মাত্র কয়েক মিনিটেই তা গলিয়ে দিয়ে ফিট ফিগার চাই। আর এজন্য বেছে নিচ্ছি বেল্ট।

মেদ ঝরানোর বেল্ট ব্যবহারে সামান্য ছিপছিপে মনে হলেও এটা খুবই সাময়িক। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বেল্ট ব্যবহারে যে ঝুঁকিগুলো রয়েছে:

• বেল্টে শরীরের মাঝের অংশের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেওয়া হয় একশ পাঁচ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত। এর ফলে ত্বকের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে

• ত্বকের র‌্যাশ, এগজিমা বা সোরিয়াসিসের প্রবণতা থাকলে বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে

• অতিরিক্ত ঘামের ফলে শরীর থেকে অনেকটা পানি বেরিয়ে যায়। ফলে দেখা দিতে পারে পানি শুন্যতা

• ফাঙ্গাল ইনফেকশনের ঝুঁকি বাড়ে

• রক্তচাপ থাকলে তা বেড়ে যাওয়ায় অনেকের হার্টে চাপ পড়ে

• দীর্ঘদিন বেল্ট বেঁধে রাখলে পরবর্তীকালে পুরুষদের বন্ধ্যাত্বের ঝুঁকি বাড়ে

প্রতি বছর এই ধরনের বেল্ট দিয়ে মেদ কমানোর চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হত। ২০১০ সালে রাশিয়ায় এমন আয়োজনে এক খেলোয়াড়ের মৃত্যুও হয়। তারপর থেকেই বেল্টের ব্যবহারে নিয়ন্ত্রণ করেছে বিশ্বের উন্নত দেশগুলো।

তবে আমাদের দেশে এই বেল্ট ব্যবহার বাড়ছে। এটি ব্যবহারে ভয়ঙ্কর বিপদ দেখা দিতে পারে। তাই মেদ কমাতে বেল্ট না ব্যবহার করে, সঠিক ডায়েট আর ব্যায়াম করুন।

Check Also

মেদ ঝরাতে তুলসি চা

তুলসি পাতার একাধিক ওষধি গুণ ও রোগ নিরাময়ের ক্ষমতা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি। যুগ যুগ …