রূপচর্চায় ক্যাস্টর অয়েলের ১০ ব্যবহার

আঠালো ক্যাস্টর অয়েল যেমন চুলের যত্নে অনন্য, তেমনি ত্বকের বলিরেখা ও দাগ দূর করতেও কার্যকর। জেনে নিন রূপচর্চায় এর ১০ ব্যবহার।

রণ দূর করতে

ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করতে পারে ক্যাস্টর অয়েলে থাকা ফ্যাটি অ্যাসিড। রাতে ঘুমানোর আগে ক্যাস্টর অয়েল চক্রাকারে ম্যাসাজ করুন ত্বকে। সকালে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

রোদে পোড়া দাগ দূর করতে
ত্বকের রোদে পোড়া দাহ দূর করতে ক্যাস্টর অয়েলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগান। আধা ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন।

চুলের ভেঙে যাওয়া রোধ করতে
সপ্তাহে কয়েকবার ক্যাস্টর অয়েল ম্যাসাজ করুন চুলে। ভিটামিন ই অয়েল ও নারকেল তেল মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। চুলের ভেঙে যাওয়া ও খুশকি রোধ হবে।

বলিরেখা দূর করতে
ত্বকের বলিরেখা দূর করতে প্রতিদিন আলতো হাতে ম্যাসাজ করুন ক্যাস্টর অয়েল।

বলিরেখা দূর হয় নিয়মিত ব্যবহারে

ফাটা গোড়ালির যত্নে
কুসুম গরম পানিতে কয়েক চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল ও সামান্য শ্যাম্পু মিশিয়ে গোড়ালি ডুবিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পর পিউমিস স্টোন দিয়ে ঘষে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে গ্লিসারিনের সঙ্গে ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে ম্যাসাজ করুন গোড়ালিতে। এরপর মোজা পরে ঘুমান।

নখের যত্নে
ভঙ্গুর নখের যত্নে ক্যাস্টর অয়েল কার্যকর। প্রতিদিন সামান্য ক্যাস্টর অয়েল সরাসরি ঘষে ঘষে লাগান নখে। নখ মজবুত হবে।

ঠোঁট ফাটা দূর করতে
ক্যাস্টর অয়েলে থাকা ভিটামিন ই ও ফ্যাটি অ্যাসিড প্রাকৃতিকভাবে ঠোঁট ফাটা দূর করে। আঙুলের সাহায্যে সামান্য তেল নিয়ে ঠোঁটে ঘষুন। অনেকক্ষণ পর্যন্ত ঠোঁট ময়েশ্চারাইজড থাকবে।

হাতের যত্নে
হাতের ত্বক শুষ্ক হয়ে গেলে আমন্ড অয়েলের সঙ্গে ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে ম্যাসাজ করুন।

চুলের বৃদ্ধি বাড়াতে
গোসলের ৪০ মিনিট আগে ক্যাস্টর অয়েল ও অলিভ অয়েলের মিশ্রণ ঘষে ঘষে লাগান চুলের গোড়ায়। এটি চুলের বৃদ্ধি দ্রুত করবে।

চোখের পাপড়ি ও ভ্রুর যত্নে
চোখের পাপড়ি ও ভুর চুল ঝরে পড়ছে? নিয়মিত ক্যাস্টর অয়েল লাগান। ঘন হবে ভ্রু ও পাপড়ি।

Check Also

তিন দিনেই গলা ও ঘাড়ের কালো দাগ দূর হবে জাদুর মতো!

অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় মুখ উজ্জ্বল বা ফর্সা হলেও গলা ও ঘাড়ে কালো দাগ রয়েছে। …