ছেলেদের ৭ স্বভাব, যা মেয়েরা ভীষণ পছন্দ করে

ছেলেদের কিছু স্বভাব রয়েছে, যা ছেলেরা নিজের অজান্তেই করে থাকে, যা মেয়েদের বেশ ভালোলাগে। আর মজার ব্যাপার হলো অনেকসময় তারা জানতেও পারে না যে মেয়েদের ওর ওই নির্দিষ্ট অভ্যেসটাই খুব পছন্দে। জেনে নিন ছেলেদের সেরকমই সাতটি স্বভাবের কথা, যা মেয়েদের কাছে ভীষণ পছন্দের-

শার্টের হাতা গোটানো: ছেলেরা বুঝতেও পারে না যে তারা যখন ফর্মাল শার্টের হাতা গুটিয়ে রাখে, তখন মেয়েরা কতটা আকর্ষণ অনুভব করে!

শিশুদের সঙ্গে মিশে যাওয়া: অনেক ছেলে আছে যারা শিশুদের সাথে নিজেরাও শিশু হয়ে যায় আর ঘর বাড়ি অগোছালো করে খেলতে থাকে। এই ব্যাপারটা কিন্তু মেয়েদের খুব ভালো লাগে। কারণ, ছেলেটি কতটা সেন্টিসিভ সেটি বুঝতে পারা যায়। আর মেয়েরা কিন্তু সেনসিটিভ ছেলেদেরই বেশি পছন্দ করে।

বিনা কারণেই যখন ‘আই লাভ ইউ’ বলে: কাউকে ভালোবাসার শুধু একটা কারণ হয় না, অনেক কারণ থাকে। কিন্তু যখন কোনো ছেলে বিনা কারণে তার প্রেমিকা বা স্ত্রীকে বারবার ‘আই লাভ ইউ’ বলে, তখন সেটা তার প্রেমিকা বা স্ত্রীর সত্যি খুব ভালো লাগে।

ছেলেরা যখন লজ্জা পায়: লজ্জা শুধু মেয়েরা পায় না, ছেলেরাও পায়। আর যখন কোনো ছেলে কোনো মেয়ের সামনে লজ্জা পায়, তখন বুঝতে হবে যে কিছু একটা ব্যাপার তো নিশ্চয়ই আছে! সে যাই হোক না কেন, মেয়েদের কিন্তু ছেলেদের এই লাজুক ব্যাপারটা বেশ ভালো লাগে।

যখন তারা মন দিয়ে কথা শোনে: মনোবিজ্ঞানীরা বলেন বলেন যখন কেউ কারো চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলে, তার মানে বুঝতে হবে যে সেই ব্যক্তি খুব আত্মবিশ্বাসী। আত্মবিশ্বাসী ছেলেদেরকে মেয়েরা পছন্দ করে। আর যখন ওরা মন দিয়ে মেয়েদের কথা শোনে, মেয়েদের চোখের দিকে তাকিয়ে, তার মানে কিন্তু ওরা মেয়েদেরকে গুরুত্ব দিচ্ছে।

যখন তারা রান্না করে: ছেলেরা কিন্তু মাঝেমাঝে তাদের প্রেমিকা বা স্ত্রীর জন্য কিছু না কিছু রান্না করে। সেই রান্নার স্বাদ যেরকমই হোক না কেন, মেয়েদের কাছে এই ব্যাপারটি কিন্তু খুব স্পেশাল।

যখন ছোট ছোট ব্যাপারগুলোরও খেয়াল রাখে: ছেলেদের একটা বদনাম আছে, তারা নাকি ছোট ছোট বিষয়ে মাথা ঘামায় না. কিন্তু যখন সে আপনার বা আপনার প্রিয়জনের জন্মদিন কিংবা আপনাদের বিবাহবার্ষিকী মনে রাখে, কিংবা আপনার জন্য একটা ছোট্ট সারপ্রাইস গিফট নিয়ে আসে, তখন কিন্তু আপনার মনে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়।

Check Also

যে কথা কখনোই স্ত্রীকে বলবেন না

দাম্পত্য সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেই ভালোবাসা, সহমর্মিতা, আন্তরিকতা এবং আত্মত্যাগ অনেক জরুরি। এর …