রং দেখে নয়, লিপস্টিক কিনুন ঠোঁটের ধরন বুঝে

ঠোঁটের ধরন না বুঝে অনেকে লিপস্টিক কেনার সময় রংকেই বেশি গুরুত্ব দেন। কিন্তু সব রং কি সবার ঠোঁটে মানায়? যার ফলে অনেকে পড়েন বিপত্তিতে। তাই ঠোঁটে মানিয়েছে কি না, তা দেখে কিনুন। লিপস্টিক কেনার সময় কিছু বিষয় মাথায় রাখলে আপনার ঠোঁট হয়ে উঠবে নজরকাড়া, আকর্ষণীয়।

১) ম্যাট লিপস্টিক : এই লিপস্টিকের স্থায়ীত্ব অনেক বেশি, তাই সারাদিনের অনুষ্ঠানে এই লিপস্টিক খুবই ভালো। তবে যাদের ঠোঁট খুব ফাটে বা শুষ্ক তাদের এই লিপস্টিক এড়িয়ে চলায় ভালো। ম্যাট লিপস্টিক লাগালে উপরে লিপবামও লাগাতে পারেন।

২) স্যাটিন ফিনিশ বা শিয়ার লিপস্টিক : ঝলমলে গ্লসি লুক পাওয়ার জন্য এই লিপস্টিক ব্যবহার করুন। কারণ, এই লিপস্টিকে অয়েল কনটেন্ট অনেক বেশি। তবে এই লিপস্টিক যা রং দেখায় ঠোঁটে কিন্তু তার থেকে অনেক বেশি গাঢ় হয়ে যায়। এই লিপস্টিকও ঠোঁটের শুষ্কভাব কাটিয়ে দেয়। তবে এই লিপস্টিক দিনের বেলায় এড়িয়ে যাওয়ায় ভালো।

৩) ক্রিমি লিপস্টিক : ক্রিম থাকায় এই লিপস্টিকে ঠোঁট অনেক ভরাট দেখায়। তাই যাদের ঠোঁট ছোট ও পাতলা তারা এ ধরনের লিপস্টিক লাগাতে পারেন। যে কোনও সাজে যেকোনও সময়ই মানাবে এটি। এ লিপস্টিক ঠোঁটের শুষ্কভাবও কাটিয়ে দেয়।

৪) ফ্রস্টেড লিপস্টিক : খুব হালকা হওয়ায় এই লিপস্টিক স্পার্কেল করে। তবে এতে ঠোঁট শুষ্ক করে না। দিনের যে কোনো সময়ই ব্যবহার করা যেতে পারে।

৫) ট্রান্সফাররেজিস্ট্যান্ট লিপস্টিক : যারা সকালে অফিসে যান ফেরেন রাতে, তাদের জন্য এ লিপস্টিক আদর্শ। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত একইরকম থাকে এ লিপস্টিক। এটি তোলাও সহজ, তেল কিংবা ময়শ্চারাইজার দিয়েও তুলতে পারেন। এতে ময়শ্চারাইজার কনটেন্ট স্বাভাবিক থাকায় ঠোঁট শুষ্ক হয় না।

Check Also

শীতে সুগন্ধি বেশি সময় স্থায়ী করতে যা করবেন

শীতের সময় শুকনো ও আর্দ্রতাশুন্য ত্বকে পারফিউমের সুগন্ধ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। এজন্য কড়া কোনো …