এবার মানিকগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৫৯ জন

মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাসের বাড়তি সতর্কতার জন্য বিদেশ ফেরত ৫৯ জন ব্যক্তিকে নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের ব্যাপারে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

মানিকগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, মঙ্গলবার (১০ মার্চ) বিকেল পর্যন্ত ইতালি, চীন, দক্ষিণ আফ্রিকা, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুরসহ বিভিন্ন দেশ থেকে মানিকগঞ্জের পাঁচ উপজেলায় ৫৯ জন ব্যক্তি বাড়ি ফিরেছেন। তাদের মধ্যে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় চারজন নারীসহ ৩২ জন, সাটুরিয়া উপজেলায় ১৮, শিবালয়ে ছয়, দৌলতপুরে দুজন এবং সিংগাইর উপজেলায় একজন রয়েছেন। বিদেশ ফেরত ওই ব্যক্তিদের নিজ নিজ বাড়িতে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় (কোয়ারেন্টাইন) রাখা হয়েছে। যাতে তারা বাইরে অবাধে চলাফেরা না করেন এজন্য নিষেধ করা হয়েছে। তবে তারা সবাই সুস্থ আছেন এবং শারীরিক কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি। ওই সব ব্যক্তি এবং তাদের পরিবারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস জানান, বিদেশ ফেরত ওই সব ব্যক্তি ও পরিবারের কাউকে আপাতত বাড়ির বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। তাদের কোনো স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দিলে তাৎক্ষণিকভাবে হাসপাতাল কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে।

এদিকে মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও আক্রান্ত ব্যক্তিদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে মঙ্গলবার জেলা সদর হাসপাতালে ১২ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট চালু করা হয়েছে। হাসপাতালের পুরোনো ভবনের দোতলায় একটি বড় আয়তনের কক্ষে এ ইউনিট খোলা হয়।

হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট (মেডিসিন) সাকিনা আনোয়ারকে প্রধান করে ৯ সদস্যবিশিষ্ট কোভিড-১৯ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি আইসোলেশন ইউনিটের রোগীদের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠাবে।

উল্লেখ্য, করোনায় আক্রান্ত ইতালিফেরত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসায় ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জে ৪০ জন ও মাদারীপুরে ২৯ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

Check Also

‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপনে প্রতারণা, ৩০ কোটি টাকা আত্মসাৎ

‘কানাডার সিটিজেন ডিভোর্সি ও সন্তানহীন নারীর জন্য পাত্র চাই’, সংবাদপত্রে এমন চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে ৩০ …