Advertisements

করোনার ৩০ রূপ, ইউরোপেরটা ২৭০ গুণ শক্তিশালী

Corona-2004260413 করোনার ৩০ রূপ, ইউরোপেরটা ২৭০ গুণ শক্তিশালী

অতি ক্ষুদ্র আণুবীক্ষণিক ভাইরাস। ক্ষমতা তার অসীম। এই ভাইরাসের কাছে মাথা নুইয়েছে আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানও। ক্ষণে ক্ষণে রূপ-মেজাজ বদলাচ্ছে ছলনাময়ী ও মারণ ভাইরাসটি। এই করোনাভাইরাস নতুন নতুন তথ্য দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এবার হতাশায় ভরা তথ্য দিলেন চীনের ঝেজিয়াং বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লি লেনজুয়ান।

প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে তিনি দাবি করেন, করোনাভাইরাস অন্তত ৩০টি জিনগত রূপে পরিবর্তিত হয়েছে বলে তারা গবেষণা করে প্রমাণ পেয়েছেন। বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে ভিন্ন ভিন্ন রূপে ছড়িয়ে পড়ায় চিকিৎসা পদ্ধতি উদ্ভাবন নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে।

Advertisements

চীনের হ্যাংঝোউ নগরীতে যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত সেখানে করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে প্রায় সাড়ে ১২ শ’ জনের। বেশকিছু করোনা রোগীর নমুনা পরীক্ষা করে যে ভাইরাসগুলো ধরা পড়েছে তার মধ্যে কমপক্ষে ১৯ প্রজাতি নতুন। এই ভাইরাসগুলো কখনো কখনো কার্যকারিতার দিক থেকেও ভিন্ন রূপ নিয়েছে বলে লেনজুয়ানের নেতৃত্বাধীন গবেষকরা জানিয়েছেন।

করোনাভাইরাস মানবদেহের কোষের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে রাখতে পারে। এমনকি কোষগুলো একইসঙ্গে ভিন্ন ভিন্ন রূপের ভাইরাস বহন করতে পারে। ভাইরাসের আক্রমণাত্মক প্রজাতিগুলো দুর্বল প্রজাতির তুলনায় ২৭০ গুণ বেশি শক্তিশালী। তাই এটি রোগীর আক্রান্ত কোষকে অতিদ্রুত মেরে ফেলতে পারে। যেটি ইউরোপের দেশগুলোতে লক্ষণীয়।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ইউরোপে যে ভাইরাস ছডিয়ে পডেছে সেটি নাকি সব থেকে শক্তিশালী ভাইরাস। সাধারণ করোনাভাইরাসের চেয়ে তার মারণ ক্ষমতা নাকি ২৭০ গুণ বেশি। ভয়াবহ এই ভাইরাসের কবল থেকে মানবজাতিকে রক্ষা করতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা উঠে পড়ে লেগেছেন।

Advertisements

Check Also

৬৪ বছর বয়সী বৃদ্ধের ২৭ স্ত্রী, ১৫০ ছেলে-মেয়ে

কানাডার অন্যতম পরিচিত ব্যক্তি উইনস্টোন ব্ল্যাকমোর। ৬৪ বছরের এই ব্যক্তির স্ত্রীর সংখ্যা ২৭। তার ছেলে-মেয়ে …