Advertisements

কিমের মৃত্যুসংবাদের ঘণ্টাখানেক পরই স্ত্রীকে নিয়ে বোরোল ভয়ংকর তথ্য, সারাবিশ্বে হৈচৈ

image-155708-1587830341 কিমের মৃত্যুসংবাদের ঘণ্টাখানেক পরই স্ত্রীকে নিয়ে বোরোল ভয়ংকর তথ্য, সারাবিশ্বে হৈচৈ

দিন কয়েক আগে শোনা গিয়েছিল, তিনি নাকি মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। এ বার ফের কিম জং উন-কে নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়ল সোশ্যাল মিডিয়ায়। বলা হল, ৩৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক। তবে এটা পুরোটাই রটনা বলে মত আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের। এ নিয়ে এখনও উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

দিন কয়েক আগেই কিম জং উনের অসুস্থতার খবরে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল সর্বত্র। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ওয়েব পোর্টাল জানিয়েছিল, হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর সংকটজনক অবস্থায় একটি রিসোর্টে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। সেখানে পরিবার-পরিজন রয়েছেন তাঁর সঙ্গে। একটি চিকিৎসক দলের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি।

সেই সময়ও পিয়ংইয়ংয়ের তরফে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। সিওলের তরফে যদিও সেই রিপোর্ট নিয়ে সংশয় প্রকাশ করা হয়। প্রেসিডেন্টের বাসভবন ব্লু হাউসের বিশেষ সূত্র জানায়, অস্ত্রোপচার হলেও কিমের অবস্থা সংকটজনক নয়।

তার পরই কিম জংয়ের ‘মৃত্যুসংবাদ’ সামনে এলো। হংকংয়ের একটি টিভি চ্যানেলে উত্তর কোরিয়ার শাসকের মৃত্যুর খবর সম্প্রচারিত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিমের মৃতদেহের ছবি বলে একটি পোস্টও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে। কিন্তু সেটি আদতে তাঁর বাবা কিম জং ইলের শেষযাত্রার ছবি বলে জানা গিয়েছে।

Advertisements

তবে কিম জংয়ের মৃত্যুর খবর নিয়ে ব্যাপক কৌতূহল দেখা গিয়েছে নেটাগরিকদের মধ্যে। রাষ্ট্রপুঞ্জের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জন্য পরিচিত কিমকে নিয়ে নানা ধরনের মিমও ছড়িয়েছে সর্বত্র।

এই সংবাদের পরই বেরিয়ে আসছে কিমের স্ত্রী রি সোল জুকে নিয়ে একাধিক গোপন তথ্য। কয়েকজন বিশেষজ্ঞ রি সো জু’র নামটি ছদ্ম নাম বলে দাবি করেছে।

বিভিন্ন সূত্র হতে প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, রি ১৯৮৫ থেকে ১৯৮৯ সালের মধ্যে জন্মগ্রহণ করেন। এছাড়াও জানা যায় রি’ খুব প্রসিদ্ধ পরিবারের সদস্য। তার মা স্ত্রীরোগ বিষয়ক চিকিৎসক এবং তার বাবা একজন অধ্যাপক।

জানা যায়, রি’ ‘জিউমসাং টু মিডল স্কুল’ থেকে লেখাপড়া এবং চীনে সঙ্গীত বিষয় উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেন। তিনি কিম জং উনের উপদেষ্টা ও সাবেক বিমানবাহিনীর জেনারেল ‘রি পিয়ং চল’ এর আত্মীয়। দক্ষিণ কোরিয়ান সংবাদপত্র ‘জুংএং এলবো’ এবং বিশেষজ্ঞ তাকে ‘উনহাসু ওরচেশট্রা’র সাবেক শিল্পী হিসেবে চিহ্নিত করেন।

আরও জানা যায়, উত্তর কোরিয়া সরকার তার অতীত মুছে দেয়ার চেষ্টা করছে এবং তার অনুষ্ঠানের সিডিগুলো নষ্ট করে দিচ্ছে, যেমন তার গাওয়া গান “সবায়েকসু”। তিনি কিম ইল সাং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সমপন্ন করেন, এবং বিজ্ঞানের উপর স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন।

এ দিকে দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দা সংস্থা বলছে, একটা নয় দুইটা নয় তিন তিনটা সন্তানের মা এই রি। কিন্তু কোনো তথ্যই প্রকাশ হয়নি উত্তর কোরিয়ার কোনো মাধ্যমে। এমনকি কেউ এই তথ্য ফাঁস করলে সোজা মারা পড়তে হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। সেজন্যই সবাই মুখবন্ধ করে রেখেছিল।

Advertisements

Check Also

৬৪ বছর বয়সী বৃদ্ধের ২৭ স্ত্রী, ১৫০ ছেলে-মেয়ে

কানাডার অন্যতম পরিচিত ব্যক্তি উইনস্টোন ব্ল্যাকমোর। ৬৪ বছরের এই ব্যক্তির স্ত্রীর সংখ্যা ২৭। তার ছেলে-মেয়ে …