জাপান গার্ডেন সিটিতে করোনা রোগীর তথ্য গোপন, আতঙ্কিত ১০ হাজার মানুষ

রাজধানী মোহাম্মদপুরের ঘনবসতিপূর্ণ জাপান গার্ডেন সিটিতে এক ভবনেই ৩ জন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের পরই পুরো আবাসিক এলাকাটি লকডাউন ঘোষণা করা হয়। রবিবার (১৯ এপ্রিল) একটি ১৬ তলা ভবনে করোনা রোগী শনাক্ত হলে ঐ বিল্ডিংটি লকডাউন ঘোষণা করা হয়। আক্রান্তদের মধ্যে একজন ওই ফ্ল্যাটের ৪৫ বছর বয়সী বাড়ির মালিক, তার গৃহকর্মী ও ড্রাইভার।

জানা যায়, এই পরিবারের একজন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। স্বাভাবিক জানাজা করে দাফন করা হয়েছে। কিন্তু তিনি যে করোনায় আক্রান্ত তা গোপন রাখা হয়েছিল। এখন এটাই সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয়। ১০ হাজারের বেশি বাসিন্দার ঢাকার এই পুরো আবাসিক এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। ভাইরাস যেন আরো ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য রবিবার দুপুরে জাপান গার্ডেন সিটির ২১টি ভবনের মধ্যে ওই ভবনটি অবরুদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে আদাবর থানার ওসি কাজী শাহীদুজ্জামান জানিয়েছেন। এর আগেও মোহাম্মদপুরের চারটি এলাকার কয়েকটি ভবন লকডাউন করা হয়েছিল।

মোহাম্মদপুরে ইতোমধ্যে ৩৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ায় কয়েকটি এলাকায় লকডাউন করা হয়। গণমাধ্যমকে এ বিষয়ে পুলিশের আদাবর থানা নিশ্চিত করেছে। তবে লকডাউনের বিষয়টি আইইডিসিআর ও সিটি করপোরেশন কাউন্সিলের নিয়ন্ত্রণে থাকায় এ বিষয়ে কেউ মুখ খোলেননি। প্রসঙ্গত, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে দেশে এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৪৫৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৫ জন।

Check Also

বরিশালের বিভিন্ন সড়কে ‘Sorry’ লেখা নিয়ে রহস্য!

বরিশাল নগরীর বেশ কয়েকটি সড়কে রঙ দিয়ে ইংরেজিতে ‘Sorry’ শব্দ লেখা নিয়ে ইতোমধ্যে রহস্যের সৃষ্টি …