তিন সপ্তাহ ধরে ঘরবন্দি থেকেও নারী করোনা আক্রান্ত; কিভাবে?

করোনার ভয়ে তিন সপ্তাহ ধরে বাড়ি থেকে বের হচ্ছিলেন না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনার শার্লট শহরের বাসিন্দা রাকহেল ব্রুমমার্ট। কিন্তু করোনা তাকেও ছেড়ে কথা বলেনি। রাকহেলের শরীরেও বাসা বেঁধেছে মারণ ভাইরাস করোনা। বর্তমানে তিনি বাড়িতে থেকেই করোনার চিকিৎসা নিচ্ছেন।

রাকহেল ব্রুমমার্ট অন্য সাধারণ মানুষের মতো পুরোপুরি সুস্থ নন। কিছুটা অসুস্থ তিনি। ভুগছেন অটোইমিউন ডিসঅর্ডারে। তাই করোনার এই দুঃসময়ে চিকিৎসকদের কথা শুনে নিজেকে ঘরবন্দি করে ফেলেন। তিনি ভাবছিলেন সবকিছু ভালো চলছে। কিন্তু হঠাৎ করেই সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হন। পরে বৃহস্পতিবার করোনার পরীক্ষা হলে তার শরীরে পাওয়া যায় করোনাভাইরাসের উপস্থিতি।

তিন সপ্তাহ বাসায় থেকেও কিভাবে তিনি করোনায় আক্রান্ত হলেন? এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি নিজেই দিয়েছেন। তার ধারণা, তার বাসায় যে নারী মুদির দোকানের পণ্য পৌঁছে দিয়েছিলেন তার মাধ্যমে হয়তো তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ পণ্য ডেলিভারি করা ওই নারীর শরীরেও করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়।

রাকহেল ব্রুমমার্ট বলেন, ওই নারীর সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ ছিল। এমনকি আমি তাকে স্পর্শও করিনি। কিন্তু আমি যখন পণ্যগুলো ওই নারীর কাছ থেকে নিচ্ছিলাম তখন হাতে কোনো গ্লাভস ছিল না। তিনি জানান, পণ্য নেওয়ার পর থেকেই তিনি কাশি, জ্বর, গন্ধের সমস্যা, শরীরব্যথা, ক্লান্তি, মাথাব্যথা ও শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। পরে পরীক্ষা করা হলে ধরা পড়ে করোনা।

Check Also

করোনা ভাইরাস: টাকা, মোবাইল স্ক্রিন এবং স্টিলে ২৮ দিন পর্যন্ত থাকতে পারে, বলছে গবেষণা

করোনাভাইরাস ২৮ দিন পর্যন্ত ব্যাংক নোট, মোবাইল ফোনের স্ক্রিন এবং স্টেইনলেস স্টিলের মতো পৃষ্ঠগুলোতে থাকতে …